জেলা 

তৃণমূল নেতা অনুব্রত মন্ডলের মেয়েকে তুলে নিয়ে গিয়ে বিয়ে করার হুমকি দিয়ে সোস্যাল মিডিয়ায় ভিডিও পোস্ট করে গ্রেফতার তিন

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : তৃণমূলের দোদন্ডপ্রতাপ নেতা তথা বীরভূম জেলার সভাপতি অনুব্রত মন্ডলের মেয়েকে তুলে নিয়ে গিয়ে বিয়ে করার ‘হুমকি’ দেওয়া ভিডিও সোস্যাল মিডিয়ায় পোস্টের জেরে গ্রেফতার এক নাবালক সহ তিন জন । তিন জনই গ্রেফতার হয়েছে রাজ্যের তিনপ্রান্ত থেকে একজন ফালাকাটায় , অন্য জন রায়গঞ্জে অপর জন পাঁশকুড়ায় ।

ঘটনার সূত্রপাত পাঁশকুড়ার এক নাবালক ইউটিউবারের চ্যানেলে প্রকাশিত ভিডিও থেকে। সেখানে অনুব্রত মণ্ডলের রাজনৈতিক ভাষণ ‘এডিট’ করে একটি ভিডিও তৈরি করা হয়। ওই ভিডিও-তেই অনুব্রত মণ্ডলের মেয়েকে তুলে নিয়ে গিয়ে বিয়ে করার ‘হুমকি’ দেওয়া হয়। শুধু বিয়েই নয়, বিয়ে করে নাতি, নাতনি নিয়ে বাড়ি ফেরার কথাও বলে ওই ইউটিউবার। সেই ভিডিও নেটিজেনদের আলোচনায় থাকতে থাকতেই তা ফেসবুকে শেয়ার করেন উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জের বাসিন্দা ২৪ বছরের অরূপ সরকার। যা ২০ হাজারের ওপরে শেয়ার হয়। সেই ভিডিও-ই ডাউনলোড করে তা টিকটকে আপলোড করে দেন ফালাকাটার বাসিন্দা ২১ বছরের সুকান্ত বর্মন। সেটিও ১৬ হাজারের ওপরে শেয়ার হয়। এইভাবেই একই ভিডিও হু হু ছড়িয়ে পড়ার পর বোলপুর থানা একটি লিখিত অভিযোগ পায়। যার ভিত্তিতেই শুরু হয় তদন্ত।

প্রথমে পুলিশের হাতে আসে ফালাকাটার সুকান্ত। এরপর সুকান্তকে জেরা করার পর অরূপের হদিশ পায় তদন্তকারিরা। আর শেষ পর্যন্ত কান টানতেই বেরিয়ে আসা মাথাও। অনুব্রত মণ্ডলের বক্তব্যকে বিকৃতভাবে ব্যবহার করে যে নাবালক ওই ভিডিও তৈরি করেছে তার কাছেও পৌঁছে যায় পুলিশ। ২১ জানুয়ারি সর্বপ্রথম সুকান্তকে গ্রেফতার করা হয়। তারপর গ্রেফতার করা হয় অরূপকে। আজ সকালে গ্রেফতার হয় ওই নাবালকও।

বোলপুর থানা সূত্রে জানা গিয়েছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে হুমকি, অপহরণ, অসম্মান ও অপরাধমূলক ষড়যন্ত্রের মামলা রুজু হয়েছে। একই সঙ্গে তিন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৬৭ এবং ৬৭-র (এ) ধারায়ও মামলা দায়ের হয়েছে।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment