কলকাতা 

মোস্তাক হোসেনের আর্থিক সাহায্যে পরিচালিত মিশনগুলির ভালো ফল

শেয়ার করুন
  • 93
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজসেবী মোস্তাক হোসেনের প্রতিষ্ঠিত জিডি স্টাডি সার্কেলের আর্থিক সহযোগিতায় পরিচালিত সংখ্যালঘু মিশনগুলির পড়ুয়ারা এবার মাধ্যমিক পরীক্ষায় ভালো ফল করেছে। আমরা অধিকাংশ মিশনের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলাম। তাদের মধ্যে মোস্তাক হোসেন পরিচালিত যে কয়েকটি মিশন মাধ্যমিকের ফলাফল আমাদের কাছে পাঠিয়েছে, সেগুলি পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

উত্তর 24 পরগনার রহমতে আলম মিশন এবছর মোস্তাক হোসেন পরিচালিত জিডি স্টাডি সার্কেলের সাহায্যপ্রাপ্ত মিশনগুলোর তুলনায় উল্লেখযোগ্য ফল করেছে। রহমতে আলম  মিশন থেকে এবছর ১৪৮ জন মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছিল সকলেই প্রথম বিভাগে পাস করেছে এদের মধ্যে স্টার  পেয়েছে 105 জন ৮০%  নম্বর পেয়েছে ৮৪ জন ৯০% নম্বর পেয়েছে ৩৪ জন সর্বোচ্চ নাম্বার ৬৬০।

হাওড়া জেলার বাগনান থানার হাল্যানের বিখ্যাত আবাসিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মাওলানা আজাদ একাডেমী এবারও উল্লেখযোগ্য সাফল্য লাভ করেছে আবাসিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে ৮৮ জন পরীক্ষা দিয়েছিল এর মধ্যে ৯০% নাম্বার পেয়েছে ৬ জন, ৮৫% নম্বর পেয়েছে ২৭ জন, ৮০% নম্বর পেয়েছে ৪২জন, ৭৫ শতাংশ নম্বর পেয়েছে 68 জন,৬০ শতাংশ নম্বর পেয়েছে ৮৮ জন। এই আবাসিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে সর্বোচ্চ নাম্বার পেয়েছে মুস্তাফিজুর রহমান। তার প্রাপ্ত নাম্বার ৬৬৩। এই প্রতিষ্ঠানটি ও মোস্তাক হোসেন এর জিডি স্টাডি সার্কেলের সাহায্য পেয়ে থাকে।

নাবাবিয়া মিশনঃ হুগলী জেলার খানাকুল থানার মাইনান গ্রামে অবস্থিত নাবাবিয়া মিশনটিও মোস্তাক হোসেন এর বিশেষ সাহায্য পেয়ে থাকে এই প্রতিষ্ঠানে একটা চা দোকানীর ছেলে ৬৬০ নম্বর পেয়ে সবাইকে চমকে দিয়েছে। দরিদ্র পরিবারের সন্তান শেখ রহমতউল্লাহ বাড়ি নদিয়া জেলার পলাশীতে। তার বাবা সেখ আদর আলীর একটি চা দোকান রয়েছে। অত্যন্ত নিম্নবিত্ত পরিবারের এই ছেলেটি মোস্তাক হোসেন এর বিশেষ সাহায্যে পড়াশোনা করে আজ মাধ্যমিকে ৯৪ শতাংশেরও বেশি নাম্বার পেয়ে রাজ্যবাসীর নজর কেড়েছে ।এই মিশন থেকে এবছর মোট ৬২ জন পরীক্ষা দিয়েছিল, স্টার মার্কস পেয়েছে, ৩০ জন আর প্রথম বিভাগে পাশ করেছে ৩২ জন।

পশ্চিমবাংলার শিক্ষা জগতে মোস্তাক হোসেন এর অবদান অস্বীকার করা যাবে না। তিনি হিন্দু-মুসলিম সমাজের গরীব পরিবারের সন্তানদের  শিক্ষার ক্ষেত্রে যে দান করে চলেছেন তা অভাবনীয় । কোন প্রশংসায় তাঁর এই ঋনকে শোধ করা যাবে না।


শেয়ার করুন
  • 93
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment