জেলা 

চলল গুলি , পড়ল বোমা , মারামারি , ধ্বস্তাধ্বস্তি ভোটারদের বুথে ঢুকতে বাধা ষষ্ঠ দফার ভোটেও অশান্তি এড়াতে পারল না কমিশন

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : ষষ্ঠ দফার নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা করতে ব্যর্থ হল নির্বাচন কমিশন । আট লোকসভা কেন্দ্রের প্রায় প্রতিটি কেন্দ্র থেকেই নানা অভিযোগ এসেছে । ভোট শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পর সমগ্র দেশবাসী টেলিভিশনে দেখতে পান ঘাটাল কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থীকে কেশপুরে বুথে ঢুকতে বাধা দেওয়া হচ্ছে তা নিয়ে তুমুল হইচই চলছে । বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষকে ঘিরে রেখেছে তার নিরাপত্তা রক্ষীরা ।

এই ঘটনার আঁচ কাটতে কাটতে আবার দোগাছিয়ায় উত্তেজনা দেখা দেয় । অভিযোগ উঠেছে , এখানে নাকি ভারতী ঘোষের নিরাপত্তারক্ষীরা গুলি চালিয়েছে । কিন্ত পরবর্তী ঘটনাবলীতে দেখা গেল ভারতী ঘোষের গাড়ি-ভাঙচুর –সংবাদ মাধ্যমের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে । নিরাপত্তারক্ষীদের মারধোর করা হয়েছে । আধা সামরিক বাহিনী উপর হামলা করা হয়েছে ।

ভারতী ঘোষের রেশ কাটতে না কাটতেই আবার দেখা গেল দিলীপ ঘোষের উপর হামলা । পিংলায় একটি বুথে ঘাটালের কংগ্রেস প্রার্থী আক্রান্ত হন । অন্যদিকে বাঁকুড়ার বড়জোড়ায় তৃণমূল বিজেপি সংঘর্ষ হয় । এদিকে দুপুরে ভারতী ঘোষ আশ্রয় নেন কেশপুরের এক কালী মন্দিরে । সেই মন্দিরের উপর ইট-বৃষ্টি করা হয় বলে অভিযোগ । এই অভিযোগ পাওয়ার পুলিশ সক্রিয় হয়ে ভারতী ঘোষকে কেশপুর থানায় নিয়ে যান । সেখান থেকে ভারতী ঘোষ পিংলায় যাওয়ার সময় রাস্তায় তাকে আটকানো হয় । তিনি রাস্তায় বসে পড়েন ।

পুলিশ বলে তার নিরাপত্তারক্ষীরা গুলি চালিয়েছে তাই তাদেরকে আটকাতে হবে । এই নিয়ে তুমুল বচসা চলে পুলিশের সঙ্গে সাবেক পুলিশ সুপারের । সেখান থেকে ছাড়া পাওয়ার পর আবার মেদিনীপুর শহরে ঢোকার আগে তাকে আটকানো হয় । এবার মেদিনীপুরের সাবেক পুলিশ সুপার ও বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষের গাড়ির সামনে পথ আটকে দাঁড়ায় তৃণমূল কর্মীরা । পরে পুলিশ গিয়ে তাঁদেরকে উদ্ধার করে ।

এদিকে , কাঁথি লোকসভা এলাকার ভগবানপুরে বিজেপির কর্মীদের উপর হামলা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে । কাঁথি লোকসভা কেন্দ্রের বাম প্রার্থীর বাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠেছে। তমলুকের সুতাহাটা এলাকা থেকেও অশান্তির খবর এসেছে ।

সব মিলিয়ে নির্বাচন কমিশন প্রথম দফা থেকে শুরু করে ষষ্ঠ দফা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করতে ব্যর্থ হয়েছে । ২০১৬ সালে নাসিম জাইদির নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন যেভাবে করিয়েছিল তার ধারে কাছে পৌছেতে পারেনি বর্তমান নির্বাচন কমিশন বলে ওয়াকিবহাল মহল মনে করছে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment