জেলা 

তৃণমূলের মহিলা বাহিনীর সামনে অসহায় ভারতী ঘোষ বুথের সামনেই কান্নায় ভেঙে পড়লেন

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : সাত সকালে খবর পান কেশপুরের একটি বুথে বিজেপির এজেন্টকে মেরে বের করে দেওয়া হয়েছে । এই খবর পাওয়ার পরেই পৌছে যান ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী ও জেলার সাবেক পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষ । তিনি কয়েক বছর আগেও এই সব এলাকায় বাঘে-গরুতে এক ঘাটে জল খাওয়াতেন । তাই তিনি ভেবেছিলেন নিজে পৌছে গেলেই সব সমস্যার হাল করে দেবেন । কিন্ত তা আর হল না ,এক সময় জঙ্গল মহল যার দাপটে কাঁপত সেই ভারতী ঘোষকে আজ ৩০ মিনিট ধরে আটকে রাখল তৃণমূলের মহিলা বাহিনী । অশ্রাব্য ভাষায় গালাগালি খেতে হল তাঁকে । একই সঙ্গে মহিলাদের ধাক্কা খেতে হল । যদিও অভিযোগ উঠেছে তাঁকে মারধোর করা হয়েছে । কিন্ত টেলিভিশনের ছবিতে দেখা যাচ্ছে তাঁকে ধাক্কা দেওয়া হয়েছে ।

তিনি খানিকটা অসহায় হয়েই হয়তো বুথের ছবি তুলে ফেলেন । সঙ্গে সঙ্গে নির্বাচন কমিশনের সমন জারি । তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর করতে নির্দেশ । ভোটের দিন কার্যত  সারাদিন ধরেই অবরুদ্ধ হয়ে রইলেন ভারতী ঘোষ । মেদিনীপুরের সাবেক এসপিকে এভাবে প্রান রক্ষা করার জন্য কালী মন্দিরে গিয়ে আশ্রয় নিতে হবে তা কল্পনাও করা যায়নি । তবে এটা ঠিকই ভারতী ঘোষ প্রমান করেছে রুখে দাঁড়াতে পারলে ভোট করানো যায় কেশপুরে । প্রথম কয়েক ঘন্টা যদি তৃণমূল বাহিনীর হয়ে থাকে তাহলে নির্বাচনের বাকী সময়টা শান্তিতে হয়েছে । সকালের দিকে গন্ডগোল হয়ে যাওয়ার ফলে বিজেপি প্রত্যাশা শুধু ঘাটাল নয় , আট লোকসভা কেন্দ্রেই এর প্রভাব পড়বে ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment