জেলা 

বহরমপুরের কংগ্রেস প্রার্থী সকালে বিজেপি , বিকেলে কংগ্রেস রাতে সিপিএম করে ; বিশ্বাসঘাতকদের পরাস্ত করার ডাক মমতার

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বহরমপুর থেকে অধীরকে খালি করে দিন ; আর দিল্লি থেকে মোদীকে খালি করে দিন । এখানে কংগ্রেস বিজেপি ও বামেরা এক হয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়ছে । এদের কোনো মেরুদন্ড নেই বলে আজ বিকেলে অধীর চৌধুরির গড় নামে খ্যাত বহরমপুরে এক নির্বাচনী জনসভায় মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী এই ভাষাতেই অধীরকে আক্রমণ করলেন ।

তিনি এদিন দাবি করেন মুর্শিদাবাদের সংগঠন যদি কেউ করে থাকে, তা যুব কংগ্রেসের সভাপতি থাকার সময় আমি করেছি। অন্য কেউ নয়। বহরমপুরের মাটিতে দাঁড়িয়ে খোদ অধীর চৌধুরীকে চ্যালেঞ্জ ছুড়লেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বহরমপুরে অধীর চৌধুরীকে হারানোর ডাক দিলেন।

এদিন তিনি  কংগ্রেসের বিরুদ্ধে ফের আরএসএসের যোগের কথা তুলে ধরেন। মমতা বলেন, এখানকার কংগ্রেস প্রার্থী সকালে বিজেপি আরএসএস করেন , বিকেলে কংগ্রেস করেন আর রাতে সিপিএম করেন । এদেরকে বিশ্বাস করবেন না ।

তিনি বলেন ,আমরা বিশ্বাসঘাতক নই। আমরা প্রাণ গেলেও বিশ্বাসঘাতকতা করি না। বিশ্বাসঘাতক ওরাই। ওরা দিনের বেলায় সিপিএমের সঙ্গে মিটিং করে, আর রাতে বিজেপির সঙ্গে ভাব করে। এভাবে ভোটে জেতা যায় না। মানুষ এসব বেইমানদের ছুঁড়ে ফেলে দেবে। এবারের নির্বাচনেই দেখবেন এইসব বিশ্বাসঘাতকদের কী শাস্তি হয়।
মমতা হুঁশিয়ারি দেন,  সংসদে দাঁড়িয়ে তৃণমূল চোর, তৃণমূল চোর বলে চিৎকার করেছিল একজন। অধীরের নাম না করেই তিনি বলেন, সবাই কী করছে, আমার সব জানা আছে। আমার কাছে সব কাগজ আছে। শুধু রাজনীতিটা করি সৌজন্য বজায় রেখে, তাই সেসব কথা তুলতে চাই না। তাঁর হুঁশিয়ারি, আমাকে ঘাঁটাবেন না। এদিন মুর্শিদাবাদের মাটি থেকে কংগ্রেসের নাম ও নিশান মুছে দেওয়ার ডাক দিলেন মমতা।

বহরমপুরের সভা থেকে মমতা দাবি করেন, মুর্শিদাবাদ, মালদহ, উত্তর দিনাজপুর- সব আসন থেকে তৃণমূল কংগ্রেস জিতবে। তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পর মুর্শিদাবাদের উন্নয়নের জন্য সবরকম কাজ করেছে। আমরা জিতিনি তবু আমরা এই জেলাকে উন্নয়নে ভরিয়ে দিয়েছি।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment