দেশ 

কর্ণাটকে কোনরূপ অশান্তি সৃষ্টির চেষ্টা হলে আরএসএস বজরং দলের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করবে কংগ্রেস সরকার

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক: কর্ণাটকে কোনরকম অশান্তি বরদাস্ত করা হবে না বলে রাজ্যের নবনির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন। শুধু ঘোষণা নয় পুলিশ প্রশাসনকে নির্দেশও দিয়েছিলেন কোনভাবে কোন সংগঠন যাতে অশান্তি করতে না পারেন। এবার আরএসএস এবং বজরং দলকে নিশানা করে হুঁশিয়ারি দিলকংগ্রেসের জাতীয় সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গের ছেলে প্রিয়াঙ্ক খাড়গে। তাঁর হুঁশিয়ারি, দক্ষিণী রাজ্যে অশান্তি ছড়াতে চেষ্টা করলেই নিষিদ্ধ করে দেওয়া হবে আরএসএস ও বজরং দলকে।

দ্বিতীয় বারের জন্য কর্ণাটকের (Karnataka) মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সিতে বসেছেন সিদ্দারামাইয়া (Siddaramaiah)। আর তারপরই রাজ্যের কংগ্রেস বিধায়ক প্রিয়াঙ্ক হুঁশিয়ারি দেন, ”যদি কোনও রাজনৈতিক কিংবা ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান শান্তিভঙ্গের চেষ্টা করে, সাম্প্রদায়িক ঘৃণা ছড়ায় কর্ণাটকে তাহলে আমাদের সরকার আইনি পথে এর মোকাবিলা করতে কোনও দ্বিধা করবে না। নিষিদ্ধ করে দেবে। সে তারা আরএসএস হোক কিংবা অন্য কোনও সংগঠন।”

Advertisement

যদিও এরকম হুঁশিয়ারি পাল্টা পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন বিজেপির কর্ণাটক শাখার সভাপতি তিনি বলেছেন আর এস এস এবং বজরং দলির বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নিলে কংগ্রেসকে পুড়িয়ে ছাই করে দেয়া হবে। যদিও বিজেপির এই ধরনের হুঁশিয়ারি শুধুমাত্র মুখের কথাতেই থেকে যাবে বলে রাজনৈতিক মহল মনে করছে।

এদিকে মাত্র কয়েক দিন আগে কেরলের মন্দিরে নিষিদ্ধ করা হয়েছে আরএসএসের গতিবিধি। বিতর্ক উসকে এই নির্দেশিকা জারি করেছে ত্রিবাঙ্কুর দেবাস্বম বোর্ড। নির্দেশিকায় স্পষ্ট বলা হয়েছে, পুজার্চনা ছাড়া মন্দির চত্বরে অন্য কোনও গতিবিধি করা যাবে না। এই পরিস্থিতিতে এবার কর্ণাটকের কংগ্রেস সরকারও ইঙ্গিত দিল আরএসএস সম্পর্কে কড়া হওয়ার।

 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ