জেলা 

পুলওয়ামায় শহীদ বাবলু সাঁতরার পরিবারও প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী পদে নরেন্দ্র মোদীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে পুলওয়ামায় শহীদ জওয়ানদেরও আমন্ত্রণ করা হয়েছে । হাওড়া জেলার বাউড়িয়ার চককাশীর শহীদ সন্তান সিআরপিএফের জওয়ান বাবলু সাঁতরার স্ত্রী মিতা সাঁতরার বাড়িতে আমন্ত্রণ পত্র পাঠানো হয়েছে ।

আমন্ত্রণ পাওয়ার কথা স্বীকার করে  মিতাদেবী বলেন, ‘‘আমার কাছে বিজেপির নেতারা এসেছিলেন। আমাকে এবং আমার শাশুড়িকে তাঁরা প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে হাজির থাকার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘যেহেতু দেশের প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ, তাই সেখানে হাজির থাকার বিষয়ে আমাদের আপত্তি নেই। তবে বিষয়টি নিয়ে পরে রাজনীতি করা হলে তা আমাদের পক্ষে অস্বস্তির কারণ হতে পারে। তাই আমি তাঁদের সাফ জানিয়েছি, আমরা ওই অনুষ্ঠানে যেতে পারি, তবে আমাদের ওই অনুষ্ঠানে হাজির থাকা নিয়ে পরে কোনও রাজনীতি করা যাবে না। বিজেপি নেতারা আমাদের সেই আশ্বাস দিয়েছেন।’’ এরপরেই বুধবার রাতে মেয়েকে নিয়ে রাজধানী এক্সপ্রেসে দিল্লি রওনা দেন মিতা।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় জম্মুর পুলওয়ামাতে সিআরপিএফের কনভয়ে হানা দেয় জঙ্গিরা। মোট ৪৯ জন জওয়ান নিহত হন। তাঁদের মধ্যেই ছিলেন চককাশীর বাসিন্দা ৩৯ বছরের জওয়ান বাবলু। জওয়ানরা নিহত হওয়ার পরে কনভয়ের নিরাপত্তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে ক্ষোভ দেখা দেয়। ক্ষোভ প্রকাশ করেন মিতাদেবীও। সেইসময়ে তিনি সংবাদমাধ্যমের কাছে জানিয়েছিলেন, যথেষ্ট নিরাপত্তা থাকলে হয়ত এই মৃত্যু এড়ানো যেত। এমনকী আকাশপথে ওই জওয়ান‌দের কেন নিয়ে যাওয়া হয়নি সেই প্রশ্নও তোলেন মিতাদেবী।

শুধু তাই নয়, ওই ঘটনার পরে যখন সারা দেশ প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য ফুটছে তখন মিতাদেবী সংবাদমাধ্যমে বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছিলেন পাল্টা হামলা কোনও সমাধান নয়। শান্তির পক্ষে বার্তা দিয়েছিলেন তিনি। যদিও ভারত ও পাকিস্তান এই দু’টি দেশের মধ্যে সীমান্তে সমস্যা কীভাবে মিটবে সেই দায়িত্ব দেশের সরকারকেই নিতে হবে বলে জানিয়েছিলেন মিতাদেবী।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment