কলকাতা 

সারদা চিটফান্ড তদন্তে পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে ৯ফেব্রূয়ারি শিলং অফিসে তলব ; ১০ ফেব্রূয়ারি আরেক অভিযুক্ত কুণালকে ডেকে পাঠাল সিবিআই

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আগামী ৯ ফেব্রূয়ারি সারদা চিটফাণ্ড তদন্তে সিবিআইয়ের মুখোমুখি হতে চলেছেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার৷ বৃহস্পতিবার সিবিআই পক্ষ থেকে এখবর জানানো হয়েছে । তাঁকে প্রশ্নবাণে জর্জরিত করার জন্য প্রস্তুত কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার বাঘা বাঘা অফিসাররা৷ সেই জন্যই রাজীব কুমারের অভিযোগকারী চিটফাণ্ড কাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত তৃণমূল কংগ্রেসের জেল খাটা প্রাক্তন সাংসদ কুণাল ঘোষকে শিলংয়ে হাজির থাকার নির্দেশ দিয়েছে সিবিআই ৷ আগামী ১০ ফেব্রূয়ারিকে শিলং-এর সিবিআই দফতরে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে ।

এই বিষয়ে কুণাল ঘোষ সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন ‘‘আমাকে ১০ ফেব্রুয়ারি শিলংয়ের সিবিআই অফিসে হাজির থাকতে বলা হয়েছে৷ আমার জামিনের অন্যতম শর্ত ছিল তদন্তে সবরকমের সহযোগিতা করার৷ সেই মতো তদন্তের সাহায্যে আমি শিলং যাব৷’’

এদিকে বুধবার সুপ্রিম কোর্ট রাজীব কুমারকে নির্দেশ দিয়েছে ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে শিলংয়ে সিবিআইয়ের মুখোমুখি হতে হবে৷ তবে সবোর্চ্চ আদালত তাঁর পক্ষে একটি রায় দিয়েছে৷ জানিয়েছে, ২০ ফেব্রুয়ারি অবধি কলকাতার পুলিশ কমিশনারকে গ্রেফতার করা যাবে না৷ রাজীব কুমার প্রথমে ৮ ফেব্রুয়ারি সিবিআইয়ের মুখোমুখি হতে চেয়েছিলেন৷ সিবিআই-র পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল তাদের সময় মত নোটিশ পাঠিয়ে ডেকে পাঠানো হবে । সংবাদ সংস্থা পিটিআই-র খবর অনুযায়ী জানা যাচ্ছে ৯ ফেব্রূয়ারি শনিবার রাজীব কুমারকে শিলং-এর সিবিআই অফিসে ডেকে পাঠানো হয়েছে ।

এ ক্ষেত্রে কুণাল ঘোষকে সিবিআইয়ের তলব গোটা ঘটনায় অন্য মাত্রা যোগ করেছে৷ সারদা কাণ্ডের সময় বিধাননগর কমিশনারেটের কমিশনার ছিলেন রাজীব কুমার৷ এই তদন্তে সিট গঠন করেন তিনি৷ আর কুণাল ঘোষ ছিলেন সারদা মিডিয়ার কর্ণধার৷ তাঁকে গ্রেফতার করে বিধাননগরের পুলিশ৷

ওয়াকিবহাল মহল মনে করছে , কুণাল ঘোষকে সামনে বসিয়ে রাজীব কুমারকে জেরা করতে চায় সিবিআই৷ অথবা রাজীব কুমারের বক্তব্যের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য কুণাল ঘোষকে শিলং ডাকা৷

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment