জেলা 

ঠাকুরনগরের সভায় হুড়োহুড়িতে পড়ে যারা আহত হয়েছে তাদের কাছে ক্ষমা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : উত্তর ২৪ পরগনার ঠাকুরনগরের সভায় হাজার হাজার প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য শুনতে এসেছিল । কিন্ত জায়গা কম হওয়ার কারণে ঠেলাঠেলিতে কয়েকজন আহত হন। সেই সব আহতদের কাছে ক্ষমা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এদিন তিনি দূর্গাপুরে দ্বিতীয় সভায় বক্তব্য রাখতে তিনি ক্ষমা চান । উল্লেখ্য,আজ সভা চলাকালীন হুড়োহুড়িতে প্রায় ৩৮ জন আহত হন। মহিলাদেরও চোট লেগেছে। বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হওয়ায় দ্রুত বক্তব্য শেষ করেন মোদি।

ঠাকুরনগরের পরই প্রধানমন্ত্রী সভা করেন দুর্গাপুরের নেহরু স্টেডিয়ামে। সেখানে ভিড় দেখে অভিভূত হন। তুলে আনেন ঠাকুরনগরের প্রসঙ্গও। বলেন, “ঠাকুরনগরেও অভূতপূর্ব উৎসাহ দেখেছি। একটু বেশিই জোশ ছিল সেখানে। মা, বোন এসেছিল আশীর্বাদ করতে। কিন্তু, আমার মনে হয়েছে, ময়দানে দ্বিগুণ বেশি লোক এসেছিল। সমস্যা হয়েছে। অনেকের চোট লেগেছে। আহতদের কাছে ক্ষমা চাইছি।”

এবারই প্রথম নয়, এর আগেও প্রধানমন্ত্রীর সভা ঘিরে বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়েছিল মেদিনীপুরে। সেবার ছাউনি ভেঙে আহত হয়েছিলেন বেশ কয়েকজন। আহতদের দেখতে হাসপাতালে গেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এবার অবশ্য দুর্গাপুরে সভার তাড়া থাকায় তিনি দ্রুত ঠাকুরনগর ছাড়েন।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment