জেলা 

সোনারপুরে সিঙ্গারা কিনতে গিয়ে বাড়ির সামনেই গুলিবিদ্ধ তরুণী

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : রা্জ্য এখন দুস্কৃতিদের স্বর্গরাজ্য হয়ে উঠেছে । দিনে-দুপুরে শ্লীলতাহানী , মারপিট, রাহাজানির সঙ্গে গুলি চালানোর ঘটনা নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনায় পরিণত হয়েছে । কারণ রাজ্যের পুলিশ-প্রশাসন ব্যর্থ হয়ে পড়েছে । তারা কাজের চেয়ে অ-কাজ করছে বেশি । তা না হলে রাত ৯ টা নাগাদ পাশের মিষ্ঠির দোকানে সিঙ্গারা কিনতে গিয়েছিল সোনারপুরের গোড়খাড়ার ঘোষপাড়ার এক কলেজ পড়ুয়া তরুণী । সিঙ্গারা কিনে ফেরার সময় রাস্তার মাঝখানে বিপদ এসে দাঁড়ায় । আচমকাই তার পাশে এসে দাঁড়ায় একটি পালসার মোটর বাইক। তাতে থাকা দুই জন তরুণীর  হাত ধরে টানার চেষ্টা করে। এমনকী তাঁকে মোটর-বাইকে তোলার চেষ্টা করা হয়।  বাধা দিতেই বেরিয়ে আসে পিস্তল। মোটরবাইকে থাকা দুইজনেই তাকে গুলি করে। রক্তাক্ত পূজা এরপর সেখানেই লুটিয়ে পড়ে।

গুলির আওয়াজ পেয়ে পাশের ক্লাবের ছেলেরা বেরিয়ে আসে।  এরপরই তড়িঘড়ি ওই তরুণীকে প্রথমে মহামায়াতলায় হিন্দুস্থান নার্সিংহোমে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু, সেখানে ভর্তি করতে অস্বীকার করেন নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষ। এরপর পিয়ারলেস হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পিয়ারলেস হাসপাতালে চিকিৎসা হলেও তার অবস্থা সঙ্কটজনক বলেই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ঘটনার তদন্তে নেমেছে বারুইপুর থানার পুলিশ এবং জেলা পুলিশ সুপার থেকে শুরু করে পুলিশের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment