কলকাতা 

১ ফেব্রূয়ারি থেকে বসছে তিন দিনের জন্য রাজ্য বিধানসভার অধিবেশন ; অখুশি বিরোধীরা , বিএ কমিটির বৈঠক বয়কট করতে পারে কংগ্রেস ও বামেরা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : তিনদিনের জন্য বসছে বিধানসভার বাজেট অধিবেশন ।  জানা গেছে, ১ ফেব্রুয়ারি বাজেট অধিবেশনের সূচনা করবেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। ওইদিনই শোকপ্রস্তাব আনা হতে পারে বিধানসভায়। ২ ও ৩ ফেব্রুয়ারি শনি ও রবিবার পড়ে যাওয়ায় বন্ধ থাকবে বিধানসভার অধিবেশন। এরপর ৪ ফেব্রুয়ারি রাজ্য বাজেট পেশ করবেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। সূত্রের খবর, আপাতত তিনমাসের ব্যয় বরাদ্দ ঘোষণা করা হবে অধিবেশনে। আর বাজেট নিয়ে আলোচনার জন্য মাত্র একটি দিন রাখা হয়েছে। রাজ্য বিধানসভায় এই নির্দেশ পাঠিয়েছেন পরিষদীয় মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

এদিকে বাজেট অধিবেশনের দিন সংকুচিত করার বিষয়ে একেবারেই খুশি হননি বিধানসভার বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান। শাসকদল বিধানসভার নিয়মকানুন মানছে না বলে এর আগেও অনেকবার অভিযোগ তুলেছেন তিনি।

তবে কেন বাজেট অধিবেশনের দিন সংকুচিত করা হল ?  এই প্রশ্নের কোনও উত্তর দিতে চাইছেন না বিধানসভার কোনও আধিকারিক। সূত্রের খবর, বাজেট অধিবেশন নিয়ে পার্থবাবুর সঙ্গে বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তীর কথা হয়। পরে বিষয়টি নিয়ে স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গেও সুজনবাবু কথা বলেন।

বাম পরিষদীয় মন্ত্রী সুজন চক্রবর্তী সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, “পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা অধিবেশনের দিন কমতে কমতে ৩৮ থেকে ৪০ দিনে এসে ঠেকেছে। যা সম্ভবত সারা ভারতবর্ষের মধ্যে সবচেয়ে কম। যখন শাসক দল সাধারণ মানুষের কথা শুনতে চায় না। তাদের সমস্যা নিয়ে আলোচনা করতে চায় না তখনই এই ধরনের ঘটনা ঘটে। আমরা কেন্দ্রীয় সরকারকে স্বৈরাচারী বলছি। কিন্তু, এরাজ্যে হচ্ছেটা কী ? কেন্দ্রীয় সরকার এক মাসের বাজেট অধিবেশন রেখেছে। এক্ষেত্রে আমরা চাইব রাজ্য সরকারও অধিবেশনের দিন বাড়ান।”

সূত্রের খবর, ৩১ জানুয়ারি সর্বদল ও বি.এ (বিজ়নেস কমিটি) কমিটির বৈঠক ডাকা হয়েছে। তবে সর্বদল বৈঠক বয়কট করতে পারে বিরোধীরা।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment