দেশ 

মধ্যপ্রদেশের নবাব পরিবারের বধূ অভিনেত্রী করিনা কাপুরকে প্রার্থী করতে চায় কংগ্রেস ; কিন্ত করিনা এখনই রাজনীতিতে আসতে রাজী নন ?

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : মধ্যপ্রদেশে পতৌদি রাজপরিবারের বধূকে এবার কংগ্রেস দল প্রার্থী করতে চাইছে বলে জানা গেছে ।  মধ্যপ্রদেশ থেকেই করিনা কাপুরকে ভোটে প্রার্থী করতে চাইছে কংগ্রেস। প্রসঙ্গত, করিনার শাশুড়ি তথা বিখ্যাত অভিনেত্রী শর্মিলা ঠাকুর বহুদিন ধরেই কংগ্রেস ঘনিষ্ঠ বলে শোনা যায়। শুধু তাই নয় গোটা পতৌদি পরিবারও এককালে কংগ্রেসের বেশ ঘনিষ্ঠ ছিল।

মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেস মনে করছে যুব ভোটব্যাঙ্ক টানতে তাঁদের প্রয়োজন করিনার মতো প্রার্থীকে। যেখানে তাঁর পরিবার এর আগেও কংগ্রেসের হয়ে ভোটে লডে়ছিল সেখানে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ক্ষেত্রে করিনা কংগ্রেসের প্রস্তাব ফেলতে পারবেন না বলেই মনে করছে সেরাজ্যের হাত-শিবির।
১৯৯১ সালে ভোপাল থেকে কংগ্রেসের হয়ে ভোটে দাঁড়িয়েছিলেন ক্রিকেটার তথা ভারত অধিনায়ক মনসুর আলি খান পতৌদি। সেই সময় তাঁর জনপ্রিয়তায় ভর করে বিজেপির প্রতিদ্বন্দ্বিতে হেলায় হারিয়েছিল কংগ্রেস।
লোকসভা নির্বাচনের দামামা বাজতেই বিভিন্ন রাজনৈতিক দল নিজেদের ভোটব্যাঙ্ক সমীকরণ নিয়ে ব্যস্ত। আর ভোটব্য়াঙ্ক সমীকরণের সঙ্গে চলছে প্রার্থী বাছাইয়ের কাজও। কঙ্গনা রানাওয়াত থেকে মাধুরী দীক্ষিত সহ একাধিক তারকার নাম ভোটের ময়দানে শোনা গিয়েছিল। এবার উঠে আসছে পতৌদির নবাব বেগম করিনা কাপুর খানের নাম!

উল্লেখ্য,কংগ্রেসের তরফে থেকে চাওয়া হচ্ছে করিনা কাপুরকে।বলিউড তারকা করিনাকে নিয়ে ভোট ময়দানে এগিয়ে যেতে চাইছে কংগ্রেস। মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেসের তরফে এই নিয়ে ভাবনা চিন্তা অনেকদিন আগেই শুরু হয়ে গিয়েছে।
অবশ্য করিনা কাপুর সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন , তিনি রাজনীতিতে আসতে চাইছেন না । তাঁর এখন একমাত্র কাজ হল অভিনয় করে যাওয়া । অভিনেত্রী এই প্রতিক্রিয়ার পরও কংগ্রেস আশা ছাড়তে নারাজ বলে জানা গেছে ।


শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment