কলকাতা 

স্থায়ীকরণ ও বেতন বৃদ্ধির দাবিতে মুখ্যমন্ত্রীর ঘরের সামনে বিক্ষোভ দেখালেন কমপিউটার শিক্ষকরা , মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে আশার আলো দেখছে শিক্ষকরা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : চাকরির স্থায়ীকরণ  অন্য কোনো এজেন্সীকে দিয়ে নয় সরাসরি সরকারকে দায়িত্ব নিতে হবে সহ অন্যান্য দাবি নিয়ে আজ মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনে অবস্থান বিক্ষোভ করেন অস্থায়ী কম্পিউটার শিক্ষকরা। আন্দোলনকারীরা মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনে এসে হুমকিদেন তাদের  দাবি না মানা হলে তাঁরা সেখান থেকে সরবেন না।  এরপর অস্থায়ী কম্পিউটার শিক্ষকদের চারজনের প্রতিনিধি দল মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন।

বেশ কয়েক বছর আগে রাজ্য সরকারের সংস্থা ওয়েবেলের পক্ষ থেকে রাজ্যের সরকার পোষিত বিদ্যালয়গুলিতে কমপিউটার শিক্ষক নিয়োগের জন্য দুটি বেসরকারি সংস্থাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। সেই মত এই দুই বেসরকারি সংস্থা অস্থায়ী কমপিউটার শিক্ষক হিসেবে বেশ কয়েকটি সরকারি স্কুলে নিয়োগ করে। কিন্তু পরবর্তী সময়ে এই সব অস্থায়ী কম্পিউটার শিক্ষকরা চাকরির নিশ্চিয়তা হারাতে থাকে । তাদের বেতন বাড়ানো হয়নি । অথচ তারা সরকারি বিদ্যালয়ের স্থায়ী শিক্ষকদের মতই বিদ্যালয় সব কাজ করে থাকেন ।  তা সত্ত্বে অভিযোগ, প্রতি মাসে বেতন পাওয়া তো দূরের কথা, ৫২ দিন অন্তর অন্তর তাঁরা মাত্র ৪৬৮০ টাকা করে পান।

অস্থায়ী শিক্ষকদের দাবিগুলির মধ্যে অন্যতম, তাঁদের বেতন বৃদ্ধি করতে হবে, মাসের মাইনে মাসের নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে দিতে হবে। তাঁদের চাকরির স্থায়ীকরণ করতে হবে। কোনও বেসরকারি সংস্থার হস্তক্ষেপ সরিয়ে তাঁদের নিয়োগকে সরকারিকরণ করে দিতে হবে বলেও দাবি করেন তাঁরা। এছাড়াও স্কুলে পড়ানো অন্যান্য বিষয়ের মতোই কম্পিউটার শিক্ষারও একটি নির্দিষ্ট পাঠ্যসূচির ব্যবস্থা করতে হবে। যেখানে ক্লাস ফাইভ থেকে ক্লাস টুয়েলভ অবধি সেই নির্দিষ্ট পাঠ্যসূচি অনুযায়ী পড়ানো হবে।মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর  আন্দোলনকারীরা জানান, মুখ্যমন্ত্রী বিষয়টি খতিয়ে দেখবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন। তিনি নিজের আপ্ত সহায়ককে নির্দেশ দিয়েছেন এই বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য। তাঁরা আশাবাদী মুখ্যমন্ত্রী আন্তরিকভাবে উদ্যোগ নিয়েছেন ফলে দ্রূত সমস্যার সমাধান হতে পারে ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment