জেলা 

আলিপুরদুয়ারের জেলাশাসক নিখিল নির্মলকে আদিবাসী উন্নয়ন পর্ষদের ম্যানেজিং ডিরেক্টর পদে বদলী করা হল

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : ফালাকাটা থানায় উপস্থিত হয়ে অভিযুক্তকে নিজের হাতে মারধোর করার জন্য ইতিমধ্যে আলিপুরদুয়ারের জেলাশাসক নিখিল নির্মলকে বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠানো হয়েছে । আজ তাঁকে  আদিবাসী উন্নয়ন পর্ষদের ম্যানেজিং ডিরেক্টর পদে বদলি করা হল । তাঁর জায়গায় আলিপুরদুয়ারের জেলাশাসক হচ্ছেন শুভাঞ্জন দাস। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ দপ্তরের অতিরিক্ত সচিব ছিলেন শুভাঞ্জন দাস। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ দপ্তরে এলেন তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তর ও নবান্নের সিইও মহুয়া বন্দ্যোপাধ্যায়।

নিখিল নির্মলের স্ত্রী সম্পর্কে সোশাল মিডিয়ায় অশালীন মন্তব্য করার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন বিনোদ কুমার সরকার নামে এক যুবক। ৬ জানুয়ারি ফালাকাটা থানায় গিয়ে আইসি সৌম্যজিৎ রায়ের সামনে অভিযুক্তকে মারধর করেন আলিপুরদুয়ারের জেলাশাসক নিখিল নির্মল ও তাঁর স্ত্রী। জেলাশাসক ও তাঁর স্ত্রীর কাছে বারবার ক্ষমা চাইলেও রেয়াত করা হয়নি বিনোদকে। মারধরের ভিডিয়োটি ভাইরাল হওয়ার পর বিভিন্ন মহলে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এরপরই জেলাশাসককে ছুটিতে পাঠানো হয়।

থানায় ঢুকে মারধরের ঘটনায় নিখিল নির্মলের বিরুদ্ধে নিন্দায় সরব হয় আইএএস দের সর্বভারতীয় সংগঠনও। সংগঠনের পক্ষ থেকে এই ঘটনার পর  টুইট করে বলা হয়, “রাজ্য সরকার ওই জেলাশাসকের কাছে ঘটনার ব্যাখ্যা চেয়েছে। এটা সমর্থনযোগ্য। প্রশাসক হিসেবে আইন নিজের হাতে নিয়ে নিখিল নির্মল যা করেছেন তা ভুল।”


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment