কলকাতা 

বনধ করতে মরিয়া বামেরা ; রুখতে তৈরি রাজ্য প্রশাসন

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : শ্রমিক-কর্মচারী সংগঠনের পক্ষ থেকে সমগ্র দেশ জুড়ে ১২ দফা দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে চলতি মাসের ৮ ও ৯ তারিখ  । আর ওই ধর্মঘটের দিন পশ্চিমবঙ্গকে অচল করার ডাক দিয়েছে বাম নেতৃত্ব। ওই একই দিনে রাজ্যকে সচল রাখার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এর ফলে রাজ্যে বনধ সমর্থক এবং বনধ বিরোধীদের মধ্যে দাঁড়িয়ে রাজ্য প্রশাসন। আর কিভাবে এই বনধ মোকাবিলা করবে এটা ভেবে হিমশিম খাচ্ছে প্রশাসনের কর্তারা।আলিমুদ্দিন সূত্রে খবর, এবারের এই বনধ অন্য বারের বনধের থেকে একটু আলাদা হবে ।
আর সিপি(আই)এম যে ছেড়ে কথা বলবে না তা বোঝা গিয়েছে সিপি(আই)এম এর রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র জানিয়েছেন, “কেন্দ্রের জন-বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে ১২ দফা দাবিতে সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। এর সঙ্গে রাজ্য সরকারের কোনও সম্পর্ক নেই। তা হলে কেন, রাজ্য সরকার এই ধর্মঘট ব্যর্থ করার চেষ্টা চালাচ্ছে। তবে যাই করা হোক, যদি জোর করে ধর্মঘট ভাঙার চেষ্টা করা হয়, তাহলে সারা রাজ্যে জুড়ে প্রতিবাদ হবে”।

আর একটি সূত্র থেকে পাওয়া খবর অনুসারে, সিপি(আই)এম এর উচ্চ নেতৃত্ব ধর্মঘট সমর্থকদের জন্য গেরিলা কায়দায় অবরোধ, মিছিল, বিক্ষোভ দেখানো নির্দেশ দিয়েছে। পাশাপাশি পুলিশ বাধা দিলে বেশ কয়েকটি জায়গায় সরাসরি সংঘর্ষে যেতেও পিছপা হবেন না তাঁরা।
রাজ্য প্রশাসনের পাশাপাশি তৈরি থাকবে রাজ্যের শাসক দলের ক্যাডার বাহিনী।  তবে মোদী সরকারের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে লোকসভার আগে বামেদের ডাকা এই বনধ যেন এই রাজ্যে সফল না হয়। আর এই বনধ কে কার্যত নির্বিষ করতে সব ব্যবস্থা করবে বর্তমান রাজ্য সরকার। এমনটাই মনে করেন রাজনৈতিক বোদ্ধারা।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment