পঞ্চায়েত সংবাদ 

রমযানের আগে ভোটের সিদ্ধান্তে বিজেপির মেরুকরণের সুবিধা হয়েছে

শেয়ার করুন
  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ রাজ্য সরকার ও শাসক তৃণমূল কংগ্রেস বিরোধীদের চাপে রাখতে এবং মুসলিম ভোট ব্যাঙ্ককে নিজেদের হেফাজতে রাখতে নির্বাচন কমিশনকে একপ্রকার বাধ্য করেছে রমযান মাসের আগে ভোট করাতে বলে হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলির অভিযোগ। তাই ভোটের দিন ঘোষণা হওয়ার পর থেকে রাজ্যজুড়ে বিজেপি এবং হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলি মেরুকরণের রাজনীতি শুরু করে দিয়েছে। বাসে, ট্রামে ট্রেনে ,রাস্তাঘাটে সর্বত্র হুইস্পারিং ক্যাম্পেন চলছে মমতা সরকারের মুসলিম তোষণ নিয়ে। আলোচনায় উঠে আসছে কই আমাদের পুজােকে নিয়ে মমতার এত মাথাব্যাথা থাকে না। আবার কোথাও বলা হচ্ছে এই সরকার শুধুমাত্র একটি বিশেষ সম্প্রদায়ের স্বার্থে কাজ করছে। শুধু কলকাতা কেন্দ্রিক নয়, সমগ্র বাংলা জুড়ে হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলি এই প্রচার করে চলেছে।
এবার সরাসরি রাস্তায় নেমে বিজেপি প্রচার শুরু করেছে। যদিও তারা রমযান মাসে ভোট নিয়ে প্রকাশ্যে কিছুই বলছে না, একটু ঘুরিয়ে বলছে,রমযান মাসের আগে ভোট করা হচ্ছে এই কারণে বাংলাদেশ থেকে লোক এনে সন্ত্রাস করে ভোট করতে চাইছে তৃণমূল কংগ্রেস।
গ্রামীণ এলাকায় বিজেপি প্রচার করছে নির্বাচন কমিশন তো তিনদিনে ভোট করতে চেয়েছিল,কিন্তু মুসলিমদের অসুবিধা হবে এই চিন্তা করে ,মমতার সরকার কমিশনকে চাপ দিয়ে রমযান মাসের দুদিন আগে  ভোট করিয়ে নিচ্ছে। মমতার মুসলিম তোষণের উদাহরণ হিসেবে এটাকে বিজেপি তাদের হাতিয়ার করে তুলেছে।
অবশ্য রাজনৈতিক মহল মনে করছে রমযান মাসের আগে ভোট করানো নিয়ে শাসক দলের এতটা জেদ করা উচিত হয়নি। এই মাসটি মুসলিমদের কাছে পবিত্র মাস হলেও কোনো কাজ করতে নিষেধ করা হয়নি। বরং এই মাসে সব ধরনের খারাপ কাজ থেকে বিরত থাকার কথা ইসলামে বলা হয়েছে। তাই নির্বাচন কমিশনকে এক প্রকার জোর করে রোযার আগে ভোট করাতে বলে শাসক দলই বিজেপিকে মেরুকরণের সুবিধা করে দিলো।
বিজেপি দল দীর্ঘদিন ধরে বলে আসছিল মমতা ব্যানার্জী তোষণের রাজনীতি করছে। বিজেপি এবার পঞ্চায়েতের প্রচারে প্রমাণ হিসেবে ভোটের নির্ঘন্টকে তুলে ধরছে।
ওয়াকিবহাল মহল মনে করছেন, পঞ্চায়েত নির্বাচনে তোষণের উদহারন কে সামনে রেখে যে প্রচার বিজেপি শুরু করেছে তার প্রভাব পঞ্চায়েতে তেমনভাবে না পড়লেও ২০১৯ এর লোকসভায় এর প্রভাব যে পড়বে তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

শেয়ার করুন
  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

One Thought to “রমযানের আগে ভোটের সিদ্ধান্তে বিজেপির মেরুকরণের সুবিধা হয়েছে”

  1. বদরুদ্দোজা হারুন/ সম্পাদক :একুশের ভাবনা।

    সংবাদ পরিবেশন ভালো হচ্ছে।

Leave a Comment