জেলা 

অনশন থেকে আত্মহত্যার হুমকি বীরভূম জেলার বিজেপি পার্টি অফিসে বিক্ষুদ্ধদের বিক্ষোভে বিপাকে রাজ্য নেতৃত্ব

শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : বিজেপি দলের ঘরোয়া কোন্দলে বীরভুম জেলা নেতৃত্ব চরম বিপাকে পড়েছে । গত ৮ ডিসেম্বর ৬০ জন কর্মী দল থেকে পদত্যাগ করার পর জেলার কিষান মোর্চার সম্পাদককে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে অভিযোগ তুলে বীরভূমে দলের জেলা কার্যালয়ের সামনে অনশনে বসলেন বিক্ষুদ্ধ কর্মীরা। শুক্রবার অনশনকারীরা কেরোসিন ও দেশলাই কাঠি হুমকি দেয় ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাঁদের দাবি পূরণ না হলে আত্মহত্যার করবেন বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে ।

সংবাদে প্রকাশ, দীর্ঘ দিন ধরেই বিজেপির কিষান মোর্চার সম্পাদক শান্তনু মণ্ডলের অপসারণকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে দলের অন্দরে তীব্র চাপান-উতোর। একাংশের দাবি, তাঁকে জোর করে ওই পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।  কোনো কারণ না দেখিয়ে শান্তনুবাবুর অপসারণের প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা বেশ কয়েকদিন ধরেই ফুঁসছিলেন। তার পর থেকেই লাগাতার ভাবে বিক্ষোভ দেখিয়ে যাচ্ছে ওই বিক্ষুব্ধ অংশ।

প্রতিবাদীরা শান্তনুবাবুর অপসারণের কারণ জানতে চাইলে জেলা নেতৃত্ব তাঁদের না কি বলেছেন, রাজ্য নেতৃত্বের নির্দেশেই ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অন্য দিকে এ ব্যাপারে রাজ্য নেতৃত্বের সঙ্গে যোগাযোগ করলে কোনো সদুত্তর মেলেনি বলেই অভিযোগ বিক্ষুব্ধদের। তবে এ দিন বীরভূম জেলা সাধারণ সম্পাদক কালসোনা মণ্ডল সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন ,“বিজেপির সঙ্গে অনশনকারীরা কোন ভাবেই যুক্ত নন। ওঁরা বিজেপি হলে এমনটা করত না। কিষান মোর্চার সম্পাদককে পদ থেকে সরানোর ব্যাপারে জেলা হস্তক্ষেপ করেনি, এটা রাজ্যের সিদ্ধান্ত”।


শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment