অন্যান্য 

নোট-বন্দী , কর-বন্দী –নজরবন্দীর পর এবার বিজেপি হবে ঘরবন্দী , ঠিকঠাক ভোট হলে বিজেপি-র ঘর ওয়াপসি : ইমানুল

শেয়ার করুন
  • 147
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বুলবুল চৌধুরি : মোদী সরকার কমপিউটারে নজরদারির ঘোষণার পর এবার মোবাইলের হোয়াটসঅ্যাপেও নজরদারি চালানোর সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে বলে সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পর দেশজুড়ে শুরু হয়েছে বির্তক । মোদী সরকারের বিরুদ্ধে নাগরিকের মৌলিক অধিকারে হস্তক্ষেপের অভিযোগ উঠেছে । দেশের সচেতন নাগরিকরা মোদী সরকারের এই সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা করেছেন । বাংলার জনরব-এর পক্ষ থেকে এই বিষয়ে বুদ্ধিজীবী ও সমাজকর্মীদের মতামত নেওয়া হয়েছে । তা ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ করা হবে । আমরা এই বিষয়ে বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী ও ভাষা চেতনা সমিতির কর্ণধার অধ্যাপক ইমানুল হকের প্রতিক্রিয়া জানতে চেয়েছিলাম । ইমানুল হক স্পষ্ট জানালেন , ২০০২ সালে বাজপেয়ী সরকারের আমলে এদেশের মুসলিম নাগরিকদের ইমেল পরীক্ষা করার কাজ শুরু হয়েছিল । আর এখন বিজেপি আর শুধু মুসলিমদের নয় , হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষদেরও কমপিউটারে নজরদারী চালানো সিদ্ধান্ত নিয়েছে । আসলে বিজেপি সরকার কারও নয় , তাদের আমলেই এদেশের হিন্দুদের সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে বলে ইমানুল হকের অভিযোগ ।

তিনি আরও বলেন , গতমাসেই কাশিতে ৫০টি মন্দির ভেঙেছে বিজেপি সরকার । এর আগে , রাজস্থানে বসুন্ধারে সরকারে ৭৫টি মন্দির ভেঙেছে , গুজরাটে মোদী ৩০০টি মন্দির ভেঙেছে । এরা হিন্দু সমাজের গরীবদের জন্য কোনো কাজ করেনি । শুধু ক্ষমতার জন্য ধর্মকে ব্যবহার করছে ।

বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী ইমানুল হক আরও বলেন, আর কমপিউটারে নজরদারী চালানোর সিদ্ধান্ত বিজেপির পতনকে সূচিত করছে । নোটবন্দী –করবন্দী-নজরবন্দী এবার বিজেপি হবে ঘরবন্দী । আর ভোট ঠিকঠাক হলে বিজেপির হবে ঘর ওয়াপসি । আগামী লোকসভা নির্বাচনে যদি মানুষ সঠিকভাবে তাদের তাদের মতামত প্রয়োগ করতে পারে তাহলে বিজেপি ১০০টি আসনও পাবে না বলে আমার মনে হয় । ইমানুল সাহেব আরও বলেন , মোদী সরকার ক্ষমতায় আসার পর যেভাবে রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে সাধারন মানুষের স্বাধীনতাকে খর্ব করেছে তাতে দেশের নাগরিকরা ক্ষুদ্ধ । আগামী দিনে বিজেপির আবার লোকসভায় ঘর ওয়াপসি হবে অর্থাৎ ২ লোকসভা আসনে ফিরে যাবে ।

 

 

 


শেয়ার করুন
  • 147
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment