দেশ 

ধ্বনি ভোটে স্পিকার নির্বাচিত হলেন ওম বিড়লা

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : বুধবার লোকসভায় ধ্বনি ভোটে স্পিকার নির্বাচিত হলেন ওম বিড়লা।বিজেপি তথা এনডিএ আগের লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লাকেই দ্বিতীয়বারের জন্য বেছে নেয়। অন্যদিকে, কংগ্রেস-সহ ইন্ডিয়া জোটের তরফে প্রার্থী ছিলেন প্রবীণ সাংসদ কে সুরেশ। তিনি কংগ্রেসের এমপি। লক্ষণীয় হল স্বাধীনতার পর এই প্রথম স্পিকার নির্বাচনে লড়াই হলেও বিরোধীরা শেষ পর্যন্ত ডিভিশন বা ভোটাভুটি চায়নি। ধ্বনি ভোটে নির্বাচিত হল ওম বিড়লা।

ডেপুটি স্পিকার পদ বিরোধীদের না দেওয়ায় ইন্ডিয়া জোট স্পিকার পদে লড়াইয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। যদিও কংগ্রেস এককভাবে কে সুরেশকে প্রার্থী ঘোষণা করায় তৃণমূল ক্ষোভ প্রকাশ করে। শেষ পর্যন্ত সব জোট শরিকই সুরেশের মনোনয়ন মেনে নেয়।

Advertisement

তবে বিরোধীরা স্পিকার নির্বাচনে লড়াই করলেও ভোটাভুটি চায়নি। প্রোটেম স্পিকার তাই ধ্বনি ভোটে ওম বিড়লাকে স্পিকার পদে বেছে নেন।

ভোটাভুটি হলে ফলাফল কী হতে পারত। এনডিএ প্রার্থী বিড়লার জয় নিয়ে কোনও সংশয় ছিল না। এনডিএ-র মোট সদস্য সংখ্যা ২৯৩জন। বুধবার সকালে অন্ধ্রপ্রদেশের ওয়াইএসআর কংগ্রেস ঘোষণা করে তাদের চারজন সাংসদ এনডিএ প্রার্থী ওম বিড়লাকে সমর্থন করবে। ফলে ভোটাভুটি হলে বিড়লা ২৯৭টি ভোট পেতেন।

অন্যদিকে, ইন্ডিয়া জোটের হাতে থাকা ২৩৬-এর থেকে বেশি ভোট পাওয়ার সম্ভাবনা ছিল কে সুরেশেরও। একাধিক ছোট দল ও নির্দলেরা সুরেশকে সমর্থনের আভাস দিয়েছিল।

স্পিকার নির্বাচনে সুরেশের হার নিয়ে কোনও মহলেই সংশয় ছিল না। কিন্তু ইন্ডিয়া জোটের নেতারা বারে বারেই বলেছেন, বিজেপি, বিশেষ করে নরেন্দ্র মোদীকে তাঁরা বার্তা দিতে চান, অষ্টাদশ লোকসভা সরকার ইচ্ছামতো চালাতে পারবে না। বিরোধীদের মতামতকে গুরুত্ব দিতে হবে। নির্বাচন পর্ব শেষ হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিরোধী নেতা রাহুল গান্ধী নব নির্বাচিত স্পিকার ওম বিড়লাকে অভিনন্দন জানান।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ