জেলা 

কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের দুর্ঘটনায় মৃত ৫ আহত ৩০

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : ঈদুল আযহার উৎসবে যখন বাংলার মানুষ সামিল হয়েছে ঠিক তখনই ঘটে গেল ভয়াবহ রেল দুর্ঘটনা। কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস এর সঙ্গে মালগাড়ির সংঘর্ষে এ পর্যন্ত পাঁচজন মারা গেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। প্রথমে মনে করা হয়েছিল সামান্য লাইনচ্যুত হয়েছে কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস। কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর ছড়িয়ে পড়ে যে এই দুর্ঘটনা আসলে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। শিয়ালদা গামী এই এক্সপ্রেস ট্রেনের পেছনের দুটি বগি মালগাড়ির উপরে উঠে গেছে। আতঙ্কে যাত্রীরা ছোটা ছুটি করেছে। অনেকেই ট্রেন থেকে লাফ দিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছে ফলে আহত হয়েছে। পুলিশ সূত্রে দাবি করা হয়েছে এখনো পর্যন্ত পাঁচজনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

৩০ জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনাগ্রস্ত ওই দুরপাল্লার ট্রেনটিতে বহু যাত্রী এখনও আটকে থাকার আশঙ্কাও করা হচ্ছে।

Advertisement

উল্লেখ্য সোমবার সকাল পৌনে ৯টা নাগাদ শিয়ালদহগামী কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসে পিছন থেকে ধাক্কা মারে মালগাড়ি। নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশনের আগে রাঙাপানিতে ঘটে দুর্ঘটনা। কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের পিছনের দুটি কামরা লাইনচ্যুত হয়েছে। এখনও পর্যন্ত ৫জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। আহত হয়েছেন বহু যাত্রী। চলছে উদ্ধারকাজ।

স্থানীয় সূত্রের খবর, এদিন শিয়ালদহগামী কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন ছেড়ে রাঙাপানিতে পৌঁছতেই পিছন দিক থেকে ধাক্কা মারে একটি মালগাড়ি। সংঘর্ষের তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের দুটো বগি লাইনচ্যুত হয়ে ছিটকে উল্টে যায়। দুমড়ে মুচড়ে যায় এক্সপ্রেসের কামরা। বিকট আওয়াজ শুনতে পেয়ে ছুটে আসেন স্থানীয়রা। প্রাথমিকভাবে এলাকাবাসীরাই উদ্ধারকাজে হাত লাগান।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ