দেশ 

জামিনের শর্ত লঙ্ঘন করেননি অরবিন্দ কেজরিওয়াল ইডির আবেদন খারিজ করে জানালো সুপ্রিম কোর্ট

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : কেন্দ্রীয় এজেন্সি এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট সুপ্রিম কোর্টে অভিযোগ করেছিল দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ও আম আদমি পার্টির নেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল সুপ্রিম কোর্টের জামিনের শর্ত লংঘন করেছেন। গত বৃহস্পতিবার অরবিন্দ কেজরিওয়াল এক সবাই বলেছিলেন দিল্লিবাসীর উদ্দেশ্যে, ‘‘২০ দিন পরে আমাকে জেলে যেতে হবে। কিন্তু আপনারাই পারেন আমাকে জেলে যাওয়ার হাত থেকে বাঁচাতে।’’ এর পরেই দিল্লিবাসীকে ‘করণীয়’ সম্পর্কে বার্তা দেন আপ প্রধান। তিনি বলেন, ‘‘দিল্লিবাসী যদি আপের প্রতীক ঝাঁটাকে বেছে নেন, তা হলে আমাকে আর জেলে যেতে হবে না।’’

আর কেজরিওয়ালের এই বক্তব্যকে হাতিয়ার করে সুপ্রিম কোর্টে জামিনের শর্ত ভেঙেছেন বলে অভিযোগ করে ইডি। আজ বৃহস্পতিবার সেই মামলার শুনানিতে ইডি র এই অভিযোগ খারিজ করে দিল দেশের শীর্ষ আদালত।

Advertisement

বৃহস্পতিবার কেজরীর ওই মন্তব্যকে ‘জামিনের শর্ত লঙ্ঘন’ বলে অভিযোগ করেন তুষার। তিনি বলেন, ‘‘সুপ্রিম কোর্টে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী জামিনের আবেদন জানানোর সময় প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে তিনি আইনের শাসনের প্রতি দায়বদ্ধ থাকবেন। কিন্তু এখন তিনি জনতাকে বলছেন, ভোটে জেতালে তাঁকে জেলে ফেরত যেতে হবে না।’’ জবাবে কেজরীর আইনজীবী অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি বলেন, ‘‘আমার মক্কেলের বিরুদ্ধে বিচারাধীন মামলা নিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা ভোটের প্রচারে ধারাবাহিক ভাবে আপত্তিকর মন্তব্য করে চলেছেন।’’

দু’পক্ষের যুক্তি শোনার পর বিচারপতি সঞ্জীব খন্না এবং দীপঙ্কর দত্তের বেঞ্চ জানায়, কেজরী যা বলেছেন, তা নিছকই তাঁর ব্যক্তিগত অনুমান। এ বিষয়ে আদালতের কিছু করণীয় নেই। কারণ তিনি এ ক্ষেত্রে জামিনের শর্ত লঙ্ঘন করেননি।’’ দিল্লির ‘আবগারি দুর্নীতিকাণ্ডে’ গত ২১ মার্চ কেজরীকে গ্রেফতার করেছিল। গত ১০ মে আপ প্রধানকে লোকসভা ভোটে প্রচারের সুযোগ দিতে ১ জুন পর্যন্ত অন্তর্বর্তী জামিন মঞ্জুর করে শীর্ষ আদালত।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ