কলকাতা 

সুপ্রিম নির্দেশে জামিন পেলেন শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার তৃণমূল বিধায়ক জীবন কৃষ্ণ সাহা

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : লোকসভা নির্বাচনের চতুর্থ দফার ভোটসের সবার পরে ই জামিন পেলেন এসএসসি দুর্নীতি মামলায় সিবিআই-এর হাতে গ্রেফতার তৃণমূল বিধায়ক জীবনকৃষ্ণ সাহা। মঙ্গলবার তাঁর জামিন মঞ্জুর করেছে সুপ্রিম কোর্ট। ২০২৩ সালের এপ্রিলে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন সিবিআইয়ের হাতে।

বাড়িতে তদন্তকারীদের অভিযান চলকালীন তথ্য লোপাট করতে নিজের মোবাইল পুকুরে ছুড়ে ফেলেছিলেন তিনি। পরে সেসব মোবাইল উদ্ধার করে সিবিআই। ১৩ মাস জেলবন্দি থাকার পর শীর্ষ আদালতে (Supreme Court) জামিন পেলেন বড়ঞার তৃণমূল বিধায়ক।

Advertisement

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় অভিযুক্ত জীবনকৃষ্ণকে ২০২৩ সালের ১৭ এপ্রিল গ্রেফতার করেছিল সিবিআই। জামিনের আবেদন নিয়ে তিনি প্রথমে কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন। সেখানে জীবনের জামিনের আবেদন খারিজ হয়ে যায়। তার পরেই জামিন চেয়ে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন রাজ্যের শাসকদলের বিধায়ক। একাধিক বার তাঁর জামিন-আর্জির শুনানি পিছিয়ে যায় শীর্ষ আদালতে। এর আগে জীবনকৃষ্ণের জামিন-মামলা গ্রহণ করে সিবিআইকে নোটিস দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। তাতে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে তিন সপ্তাহের মধ্যে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

জীবনকৃষ্ণের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার মূল অভিযোগ ছিল যে, তিনি নিয়োগ দুর্নীতিকাণ্ডের ‘মিডলম্যান’ প্রসন্ন রায়কে ‘দুর্নীতির কাজে’ সহযোগিতা করতেন। কিন্তু নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার হওয়া প্রসন্ন ইতিমধ্যেই জামিন পেয়ে গিয়েছেন। শীর্ষ আদালতে বিষয়টি উত্থাপন করেন তৃণমূল বিধায়কের আইনজীবীরা। জীবনকৃষ্ণের হয়ে শীর্ষ আদালতে সওয়াল করেন আইনজীবী মুকুল রোহতগি, রউফ রহিম এবং অনির্বাণ গুহঠাকুরতা।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ