কলকাতা 

রথযাত্রা নিয়ে লালবাজারে আলোচনার ভিডিয়ো ফুটেজ জমা দিতে বলল হাইকোর্ট , কাল ফের শুনানী

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : রথযাত্রার জন্য বিজেপিকে তিনটি সম্ভাব্য তারিখ জমা দিতে নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট। একইসঙ্গে বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তী রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনেরালকে নির্দেশ দিয়েছে ১৩ ডিসেম্বর বিজেপি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে রাজ্য প্রশাসনের আধিকারিকদের বৈঠকের ভিডিয়ো ফুটেজ জমা দেওয়ার জন্য। আগামীকাল এই মামলার পরবর্তী শুনানি।

ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশমতো ১৩ ডিসেম্বর বিজেপি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে লালবাজারে রথযাত্রা নিয়ে মিটিং করে রাজ্য সরকার। ১৫ ডিসেম্বর জানানো হয়, দীর্ঘ ৪৫ দিন ধরে রথযাত্রা করা হলে রাজ্যে সাম্প্রদায়িক উত্তেজনার পরিবেশ তৈরি হতে পারে। তার জেরে রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার সম্ভাবনা আছে । তাই রথযাত্রার অনুমতি দেওয়া সম্ভব নয় । তবে, প্রধানমন্ত্রী সহ বিজেপি-র একাধিক শীর্ষনেতা রাজ্যের যেকোনো প্রান্তে অনুমতি নিয়ে সভা করতে পারবে । এরপরই গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রার অনুমতি চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চে মামলা দায়ের হয় , সেই মামলার শুনানি হয় আজ।

কলকাতা হাইকোর্টে এই মামলার শুনানিতে বিজেপি-র আইনজীবী এস কে কাপুর বলেন, “আমরা অক্টোবর মাস থেকে যাত্রার অনুমতি চেয়ে অপেক্ষা করছি। এই যাত্রা কোনও ধর্মীয় যাত্রা নয়। এটা পুরোপুরি রাজনৈতিক যাত্রা। এখানে প্রধানমন্ত্রীসহ অন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা আসবেন। বিজেপি-কে রাজ্য সরকার বরাবরই সাম্প্রদায়িক শক্তি বলে মনে করে।এই খেলাটা দীর্ঘ ২৫-২৬ বছর ধরেই চলছে। সংবিধানের ১৯ ধারা অনুযায়ী শান্তিপূর্ণ জমায়েত ও নিজের বক্তব্য প্রকাশ করার অধিকার সকলকেই দেওয়া হয়েছে। এটাকে অস্বীকার করা যায় না। আইনের বলে কিছু যুক্তিযুক্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা যেতে পারে। কিন্তু, রাজ্য সরকার যদি আগে থেকেই সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলে তাহলে আমাদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করার কী দরকার ছিল?”

তিনি আরও বলেন, “ইদের সময়, দীপাবলির সময়ও প্রতি শুক্রবার রাজ্যের রাস্তায় রাস্তায় জমায়েত হয়। আর এই রাজ্যের কোণে কোণে মন্দির ও মসজিদ রয়েছে। তাহলে বলতে হয় পুরো রাজ্যটাই ধর্মীয় স্থান। দুর্গা পুজোর নিরঞ্জনের সময় রাজ্য পুরো ব্যাপারটা খুব ভালোভাবেই সামলায়। তাহলে এখানে সমস্যা হবে কেন? রাজ্যে গণতন্ত্র শেষ হয়ে গেছে। এবং এটা বলার স্বাধীনতা আমার আছে।”

এরপরই বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তী বিজেপি-র আইনজীবীকে রথযাত্রার নতুন তিনটি প্রস্তাবিত তারিখ জানাতে বলেন। এছাড়া, অ্যাডভোকেট জেনারেল ১৩ তারিখের বৈঠকের ভিডিয়ো ফুটেজ জমা দিতে বলেন।”

 


শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment