কলকাতা 

৫ হাজারের জন্য ২৬ হাজারের চাকরি কেন যাবে? সুবিচারের জন্য সুপ্রিম কোর্টে যাব, জানালেন স্কুল সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ ২০১৬ এসএসসির প্যানেল সার্বিকভাবে বাতিল করে দেওয়ার নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছে স্কুল সার্ভিস কমিশন। হাইকোর্টের রায় আসার কয়েক ঘন্টা পরে ই সাংবাদিকদের সঙ্গে মিলিত হয়ে একথা জানালেন স্কুল সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সিদ্ধার্থ মজুমদার।

সোমবার হাই কোর্টের বিচারপতি দেবাংশু বসাক এবং বিচারপতি মহম্মদ শাব্বার রশিদির বিশেষ ডিভিশন বেঞ্চ এসএসসি মামলার রায়ে সব মিলিয়ে মোট ২৫ হাজার ৭৫৩ জনের চাকরি বাতিল করেছে। অর্থাৎ, ২০১৬ সালে যাঁরা চাকরি পেয়েছিলেন, তাঁদের সকলের নিয়োগ বাতিল করা হয়েছে। শুধু তা-ই নয়, প্যানেলের মেয়াদ শেষের পরে যাঁরা চাকরি পেয়েছেন, জনগণের টাকা থেকে বেতন নিয়েছেন, তাঁদের চার সপ্তাহের মধ্যে সুদ-সহ বেতন ফেরত দিতে হবে। বছরে ১২ শতাংশ সুদে টাকা ফেরত দিতে হবে।

Advertisement

এসএসসির চেয়ারম্যান সিদ্ধার্থ স্পষ্ট জানালেন, উচ্চ আদালতের রায়ে তিনি খুশি নন। তাঁর প্রশ্ন তোলেন, পাঁচ হাজার জনের বিরুদ্ধে অবৈধ ভাবে চাকরি পাওয়ার অভিযোগ উঠেছে, তার জন্য ২৬ হাজার জনের কেন চাকরি বাতিল হবে?

সেই সঙ্গে সিদ্ধার্থ জানান, আদালতের রায় তিনি এখনও পড়ে দেখেননি। রায়ের প্রতিলিপি হাতে এলে আইনজীবীদের সঙ্গে শলাপরামর্শ করে যাবতীয় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সিদ্ধার্থের কথায়, ‘‘প্রায় ৩০০ পাতার রায়। প্রায় সাড়ে তিনশোটা মামলা। ভিতরে অনেক পয়েন্টস আছে। সুনির্দিষ্ট কোনও নির্দেশ আছে কি না দেখতে হবে। সবটা না পড়ে কিছু বলা মুশকিল।’’


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ