কলকাতা 

রেড রোডে ঈদের জামাতে মুখ্যমন্ত্রী “বাংলায় আমরা বিজেপির বিরুদ্ধে লড়ছি, একটা ভোটও অন্য কাউকে দেবেন না”, এনআরসি ও সিএএ নিয়ে বিজেপিকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ মমতার

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : প্রতিবছরের মতো এ বছরও ঈদের জামাতের পর এক অনুষ্ঠানে অংশ নেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কলকাতার রেড রোডে অনুষ্ঠিত ঈদের জামাতের কুশল বিনিময়ের পাশাপাশি এদিন তিনি উপস্থিত মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন। বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বা সিএএ নিয়ে কড়া মন্তব্য করেন। তিনি এদিন তীব্র ভাষায় বিজেপিকে আক্রমণ করেন এর পাশাপাশি বাম কংগ্রেসকে লক্ষ্য করে পাঠক্র করেন। যেটা নিয়ে ইতিমধ্যেই মুসলিম সমাজের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। তাদের প্রশ্ন হচ্ছে নিতান্তই একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে মুখ্যমন্ত্রী যেভাবে রাজনীতি করলেন তা এককথায় অনভিপ্রেত ছিল। এই ধরনের কথাবার্তা ঈদের মঞ্চ থেকে বলা ঠিক হয়নি বলে অনেক মুসলিম সমাজ কর্মী এবং সুশীল সমাজের ব্যক্তিরা মনে করছেন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দিষ্ট সময়ে তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কে সঙ্গে নিয়ে রেড রোডে এসে হাজির হন। উপস্থিত মুসল্লিদের ঈদের শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি তিনি এদিন বলেন, “বাংলায় আমরা বিজেপির বিরুদ্ধে লড়ছি। একটা ভোটও অন্য কাউকে দেবেন না।”

Advertisement

বক্তব্যের শুরুতেই ঐক্য বজায় রাখার আহ্বান জানান মমতা। বলেন, “আপনারা এককাট্টা থাকলে কেউ আলাদা করতে পারবে না।” প্রথম বিজেপির নাম না করেই তিনি বলেন, “অভিন্ন দেওয়ানি বিধি (ইউসিসি) আনছে। আমরা ঘৃণাভাষণ চাই না, এনআরসি চাই না, সিএএ চাই না। আমাদের লক্ষ্য সর্বধর্ম সমন্বয়।”

তার পরেই ফের কেন্দ্রীয় এজেন্সি নিয়ে বিজেপিকে তোপ দাগেন মমতা। ভূপতিনগরের ঘটনার আবহেই কেন্দ্রের শাসকদলকে কটাক্ষ করে বলেন, “চকোলেট বোমা ফাটলেও এনআইএ পাঠিয়ে দিচ্ছে। সবাইকে ইডি-সিবিআইয়ের ভয় দেখাচ্ছে। এজেন্সিকে ভয় পাই না।” বিজেপি গোটা দেশকে জেলখানা বানিয়ে দিচ্ছে বলেও আক্রমণ শানান তিনি।

বক্তব্যের শেষ দিকে অবশ্য সরাসরি বিজেপির নাম করেই তাদের নিশানা করেন মমতা। বলেন, “বাংলায় আমরা বিজেপির বিরুদ্ধে লড়ছি। দিল্লিতে ইন্ডিয়া জোট কী হবে, বুঝে নেব।” তার পরেই বাম-কংগ্রেসের নাম না করেই তাদের নিশানা করে মমতা বলেন, “বাংলায় একটা ভোটও অন্য কাউকে দেবেন না।”


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ