জেলা 

নির্বাচনী প্রচার চালানোর সময় দিলীপ ঘোষকে লক্ষ্য করে গো ব্যাক স্লোগান তৃণমূলের! উত্তেজনা দুর্গাপুরের ফুলঝোড় মোড়ে

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : বর্ধমান দুর্গাপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী দিলীপ ঘোষকে প্রচারে বাধা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা এই বাধা দিয়েছে বলে বিজেপির অভিযোগ।

সোমবার সকালে দুর্গাপুরের ফুলঝোড় মোড়ে ‘চায়ে পে চর্চা’য় যোগ দিতে গিয়েছিলেন বর্ধমান-দুর্গাপুর কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী দিলীপ। তিনি এমএমসি টাউনশিপ এলাকায় প্রাতর্ভ্রমণ সেরে ওই কর্মসূচিতে যোগ দেন। দিলীপ পৌঁছনোর পরেই তাঁকে লক্ষ্য করে ‘গো ব্যাক’ স্লোগান দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। ওঠে ‘জয় বাংলা’ স্লোগানও।

Advertisement

তার পরেই ওই চত্বরে উত্তেজনা ছড়ায়। তৃণমূল এবং বিজেপি কর্মীদের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায়। কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানেরা দিলীপকে ওই জায়গা থেকে সরিয়ে নিয়ে যান। বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে ‘ভাইপো চোর, পিসি চোর, তৃণমূলের সবাই চোর’ স্লোগান দিতে দিতে এলাকা ছাড়তে দেখা যায় দিলীপকে। এলাকায় আসে পুলিশবাহিনী। দুই দলের ধস্তাধস্তি থামাতে হিমশিম খেতে হয় দুর্গাপুর নিউ টাউনশিপ থানার পুলিশকে। পুলিশকে ঘিরেও চলে বিক্ষোভ। পরে বিজেপি কর্মীরা থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান।

দিলীপকে লক্ষ্য করে যাঁরা স্লোগান দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ, তাঁদের বক্তব্য, তাঁরা কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগ নিয়ে দিলীপকে নালিশ জানাতে এসেছিলেন। কিন্তু বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি নাকি তাঁদের সঙ্গে কথা বলতে চাননি। দিলীপের অবশ্য মন্তব্য, “তৃণমূলের দোকান বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। সেই জন্য ওদের কিছু মহিলা এসেছিলেন ঝামেলা করতে। আর কিছু করতে পারবেন না।” সোমবার দিলীপ কেন্দ্রীয় এজেন্সির উপরে হামলার অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, “কিছু করতে পারবে না। এই কেন্দ্রীয় সরকার অপরাধীদের প্রয়োজনে মাটির তলা থেকে তুলে এনে বিচার করবে।”


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ