কলকাতা 

শূন্য থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে বারটি লোকসভা আসনে জোর লড়াই করবে বাম কংগ্রেস

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : বাম কংগ্রেস জোট এবারের লোকসভা নির্বাচনে ভালো ফল করবে বলে মনে করছে। ইতিমধ্যেই তারা রাজ্যের বারোটি লোকসভা আসনকে চিহ্নিত করেছে যেখানে হয় প্রথম স্থান নয় দ্বিতীয় স্থানে থাকার কথা বিবেচনা করছে বাম ও কংগ্রেস নেতারা। প্রসঙ্গত বলা প্রয়োজন এবারের নির্বাচনের বাম কংগ্রেস জোট মসৃণ ভাবে হয়েছে। প্রতিবাদ কোথাও না কোথাও সমস্যা থাকে এবার সেই সমস্যা খুব বেশি নেই।

এই বারোটা লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ লোকসভা যেখানে বাম কংগ্রেস জোটের প্রার্থী হয়েছে কংগ্রেসের আলী ইমরান ভিক্টর। মালদা উত্তর লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী কংগ্রেসের মোস্তাক আলম এবার এই আসনটা বিজেপির কাছ থেকে ছিনিয়ে নিতে পারে। বাম কংগ্রেস জোটের প্রার্থী মোস্তাক আলম বলে সংশ্লিষ্ট জোটের নেতারা মনে করছেন।

Advertisement

মুর্শিদাবাদে তিনটি লোকসভার তিনটি লোকসভা আসনের মধ্যে দুটিতে জিতবে বলে মনে করছে বাম কংগ্রেস জোট। বহরমপুর এবং মুর্শিদাবাদ লোকসভা কেন্দ্র তবে জঙ্গিপুর লোকসভা কেন্দ্রের জোর টক্কর হওয়ার সম্ভাবনা আছে। সেখানে কংগ্রেস প্রার্থী জিতে গেলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

২০১৯ লোকসভা (Lok Sabha 2019) নির্বাচনে রাজ্যে দুটি আসন জিতেছিল কংগ্রেস। বামেদের হাতে কোনও আসন ছিল না। সেবার স্পষ্ট কোনও আসন সমঝোতা হয়নি দুই শিবিরের। তবে বামেরা কংগ্রেসের জন্য দুটি আসনে প্রার্থী দেয়নি। আবার কংগ্রেসও (Congress) দুটি আসনে প্রার্থী দেয়নি। সে তুলনায় এবার জোট অনেক মসৃণ। দু-এক জায়গায় সামান্য সমস্যা থাকলেও প্রায় গোটা রাজ্যেই আসন সমঝোতা হয়েছে। বেশিরভাগ আসনেই যৌথভাবে প্রচারও করছেন বাম ও কংগ্রেস কর্মীরা।

তবে গোটা রাজ্যে একই তীব্রতার সঙ্গে লড়াইয়ের পন্থা থেকে সরে নির্দিষ্ট, সম্ভাবনাময় কিছু আসনে বাড়তি নজর দিচ্ছে বাম (Left Front) ও কংগ্রেস। সাংগঠনিক রিপোর্ট এবং বাইরের সমীক্ষার তথ্যের ভিত্তিতে রাজ্যজুড়ে ১২টি আসনকে চিহ্নিত করা হয়েছে। এর মধ্যে উত্তর দিনাজপুর, মালদহ ও মুর্শিদাবাদ মিলিয়ে ৬টি আসন রয়েছে প্রাধান্যের শীর্ষে। এর মধ্যে রায়গঞ্জ, মালদহ দক্ষিণ, বহরমপুর এবং মুর্শিদাবাদকে জয়ের মতো আসন বলে মনে করছে বামেরা। সিপিএম ও কংগ্রেস, দুই শিবিরেরই আশা সঠিকভাবে ভোট হলে এই আসনগুলিতে জয় আসতে পারে।

এর বাইরে দমদম, যাদবপুর ও শ্রীরামপুরের মতো আসনকেও সম্ভাবনাময় আসন হিসাবে দেখছে বামেরা। দমদমে লড়ছেন সুজন চক্রবর্তী, শ্রীরামপুরে দীপ্সিতা ধর, এবং যাদবপুরে সৃজন ভট্টাচার্য। যাদবপুর ও শ্রীরামপুর চষে বেড়াচ্ছেন সিপিএমের ছাত্র রাজনীতির দুই উল্লেখযোগ্য মুখ। এর বাইরেও আসানসোল, কৃষ্ণনগরের মতো আসনে ভালো ভোট পাওয়ার আশায় বাম শিবির। তবে আলিমুদ্দিন মনে করছে, আইএসএফ জোটে থাকলে আরও সুবিধা হত।


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ