দেশ 

কংগ্রেস দেশের ১৬ টি লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী ঘোষণা করল! চমক অন্ধ্রে শর্মিলা রেড্ডি, বিহারে তারিক আনোয়ার

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : দেশের আটটা লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করল জাতীয় কংগ্রেস। পশ্চিমবঙ্গ পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিঙে প্রার্থী করা হয়েছে মুনিশ তামাং কে। এছাড়া ওড়িশার আটটি লোকসভা আসনে প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছে কংগ্রেস। এই রাজ্য থেকে জয়ী একমাত্র সাংসদকে এবার প্রার্থী করা হয়েছে তারই আসন থেকে। এই ১৬ জন প্রার্থীর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন অন্ধ্র্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী তথা ওয়াইএসআর কংগ্রেস প্রধান জগন্মোহন রেড্ডির বোন শর্মিলা এবং প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিহারের নেতা তারিক আনোয়ার।

গত জানুয়ারিতে মল্লিকার্জুন খড়্গে এবং রাহুল গান্ধীর উপস্থিতিতে ‘হাত’ শিবিরে শামিল হওয়ার পরেই অন্ধ্রপ্রদেশ কংগ্রেস সভানেত্রীর দায়িত্ব পেয়েছিলেন শর্মিলা। এ বার ‘রেড্ডি পরিবারের গড়’ হিসেবে পরিচিত কাড়াপা লোকসভায় প্রার্থী করা হয়েছে তাঁকে। শর্মিলার বাবা, অখণ্ড অন্ধ্রের প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা রাজশেখর রেড্ডি ওই আসন থেকে চার বার লোকসভায় নির্বাচিত হয়েছিলেন। দাদা জগন দু’বার। মনমোহন সিংহ সরকারের মন্ত্রী পল্লম রাজুকে কাঁকিনাড়া আসনে ফের প্রার্থী করেছে কংগ্রেস।

Advertisement

ইন্দিরা গান্ধীর জমানায় সর্বভারতীয় যুব কংগ্রেসের সভাপতি তারিক ১৯৯৯ সালে শরদ পওয়ারের সঙ্গে কংগ্রেস ছেড়ে এনসিপি গড়েছিলেন। পরবর্তী সময়ে ইউপিএ সরকারের মন্ত্রীও হন। ২০১৮ সালে কংগ্রেসে ফিরে আসেন তিনি। বিহারের কাটিহারের চার বারের সাংসদ তারিক এ বারও তাঁর পুরনো কেন্দ্রে টিকিট পেয়েছেন। সেই সঙ্গে ২০১৯-এ বিহারে জেতা বিরোধী জোটের একমাত্র প্রার্থী, কিষাণগঞ্জের মহম্মদ জাভেদকেও আবার টিকিট দেওয়া হয়েছে। অন্ধ্রের পাঁচ, বিহারের দুই আসনের পাশাপাশি ওড়িশার আটটি লোকসভা কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থীদের নামও ঘোষিত হয়েছে মঙ্গলবার।

২০১৯ সালের লোকসভা ভোটে ওড়িশাতেও একটি মাত্র আসনে কংগ্রেস জিতেছিল। কোরাপুট আসনে বিদায়ী সাংসদ সপ্তগিরি শঙ্কর উলাকাকেই আবার প্রার্থী করেছে রাহুল-খড়্গের দল। বোলাঙ্গির লোকসভায় টিকিট পেয়েছে ওড়িয়া চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেতা মনোজ মিশ্র। লোকসভা ভোটের সঙ্গে ওড়িশাতে বিধানসভা ভোট হবে। কংগ্রেসের তরফে ৪৯ জনের প্রার্থীতালিকায় প্রদেশ সভাপতি শরৎ পট্টনায়েক (নুয়াপাড়া) এবং প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভক্তচরণ দাসের (নারলা) নাম ঘোষণা করা হয়েছে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ