কলকাতা 

কৃষ্ণনগরে মহুয়া মৈত্রের সমর্থনে রবিবার নির্বাচনী সমাবেশের মাধ্যমে প্রচার শুরু করছেন মমতা, আগামী সপ্তাহে উত্তরবঙ্গে নির্বাচনী প্রচারে তৃণমূল নেত্রী

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আগামীকাল রবিবার থেকে কৃষ্ণনগরের তৃণমূল প্রার্থী মহুয়া মৈত্রের সমর্থনে সভার মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচার শুরু করবেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর আগামী তেসরা এপ্রিল থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উত্তরবঙ্গ সফর শুরু করছেন। ৩ তারিখে তিনি উত্তরবঙ্গ সফরে রওনা দেবেন ৪ তারিখ থেকে ৮ তারিখ পর্যন্ত তিনি উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় নির্বাচনী জনসভায় অংশ নেবেন।

১৯ এপ্রিল প্রথম দফায় লোকসভা নির্বাচন হবে। ওই দিনই পশ্চিমবঙ্গের তিন আসন অর্থাৎ, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি এবং আলিপুরদুয়ার লোকসভায় ভোট। তাই মনে করা হচ্ছে, এই সময়ে তিনি প্রচারসভা করতে পারেন এই লোকসভা এলাকাতেই। গত লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গের একটি আসনও জিততে পারেনি তৃণমূল। তাই এ বার উত্তরবঙ্গ থেকে কয়েকটি আসন জিততে চাইছে বাংলার শাসকদল। সে জন্য পাঁচ দিনের উত্তরবঙ্গ সফরে এই সব লোকসভা আসনে প্রচারসভার পাশাপাশি মিছিল ও জনসংযোগ করতে পারেন তিনি।

Advertisement

লোকসভা নির্বাচনের নির্ঘণ্ট অনুযায়ী প্রথম তিন দফায় উত্তরবঙ্গের সব ক’টি আসনে ভোট সম্পন্ন হবে। দ্বিতীয় দফার ভোটে ২৬ এপ্রিল ভোট হবে দার্জিলিং, রায়গঞ্জ ও বালুরঘাট লোকসভায়। তৃতীয় দফায় ভোট ৭ মে। ওই দিন ভোট হবে মালদহ উত্তর এবং দক্ষিণ আসনে। ওই দিনই ভোট হবে মুর্শিদাবাদ এবং জঙ্গিপুর লোকসভায়। তবে মমতার এ বারের সূচিতে মালদহ-সহ উত্তরবঙ্গের অন্য লোকসভা আসনগুলি থাকলেও কোনও ভাবেই রাখা হবে না মুর্শিদাবাদ। উত্তরবঙ্গ সফর থেকে ফিরে আবারও প্রচারসূচি তৈরি করে মুর্শিদাবাদের আসনগুলির জন্য প্রচারে যাবেন মমতা।

এই সফরেই বালুরঘাটের তৃণমূল প্রার্থী বিপ্লব মিত্রের প্রচারে যাতে মুখ্যমন্ত্রী যান, সে ভাবেই তাঁর সফরসূচি তৈরি করা হচ্ছে বলে তৃণমূল সূত্রে খবর। কারণ, দ্বিতীয় দফায় বালুরঘাটে ভোট হলেও, ওই কেন্দ্রের বিজেপির প্রার্থী বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। যিনি ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থী অর্পিতা ঘোষকে হারিয়ে জয়ী হয়েছিলেন। তাই তাঁর বিরুদ্ধে জোরালো প্রচার চাইছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব।

আপাতত তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব রবিবার কৃষ্ণনগরের প্রার্থী মহুয়া মৈত্রের সমর্থনে মুখ্যমন্ত্রী যে জনসভা করবেন, তা সফল করতে মরিয়া। কারণ, আনুষ্ঠানিক ভাবে মমতা তাঁর লোকসভা নির্বাচনের প্রচার শুরু করছেন। তাই ধুবুলিয়ার সভা সফল করতে ওই লোকসভার অধীন সব নেতাকে বাড়তি দায়িত্ব নিয়ে জনসমাগমের বন্দোবস্ত করতে বলা হয়েছে। নদিয়া জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের একটি সূত্র জানাচ্ছে, বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে এসে রানাঘাট লোকসভায় প্রার্থী হওয়া মুকুটমণি অধিকারীকেও এই সভায় উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। নদিয়া জেলা তৃণমূলের এক নেতার কথায়, ‘‘১৩ মে চতুর্থ দফায় ভোট হবে কৃষ্ণনগরে। তাই জেলা নেতৃত্বের তরফে ভোটের আগে মুখ্যমন্ত্রীকে কৃষ্ণনগরে আরও একটি প্রচারসভা করার আবেদন জানানো হবে।’’

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ