কলকাতা 

বিজেপি আইনজীবী সংগঠনের সদস্যদের আচরণে ক্ষুব্ধ প্রধান বিচারপতি, কড়া পদক্ষেপের ভাবনা!

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : কলকাতা হাইকোর্টের বিজেপি আইনজীবী সংগঠনের সদস্যদের প্রতি প্রচণ্ড পরিমাণে ক্ষুব্ধ হয়েছেন প্রধান বিচারপতি টি এস শিবজ্ঞানম।

শুক্রবার কলকাতা হাই কোর্টে নিজের এজলাসে বসেই উপস্থিত আইনজীবীদের উদ্দেশ্য করেই প্রধান বিচারপতি শিবজ্ঞানম  বলেন, ‘‘গতকাল (বৃহস্পতিবার) রেজিস্ট্রার জেনারেলের অফিসে ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটেছে। একদল আইনজীবী গিয়ে ওই দফতরের কর্মীদের হুমকি দিয়ে এসেছেন, কোর্ট রুমের ভিতরে তাঁদের মিটিং করতে দিতে হবে!’’

Advertisement

প্রধান বিচারপতি এর পরেই জানান তাঁর ক্ষোভের কথা। তিনি বলেন, ‘‘বুধবারও প্রায় ৪০ জন আইনজীবী কোর্টের মধ্যে জড়ো হয়েছিলেন। খবর পেয়েছি একটি রাজনৈতিক মিটিং হচ্ছিল। কিন্তু কোর্টের মধ্যে কেন? যে কোনও জায়গায় মিটিং করতে পারেন। এখানে আদালতের পবিত্রতা বজায় রাখুন!’’

বিচারপতি এই ঘটনাটি নিয়ে কতটা ক্ষুব্ধ তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন এজলাসেই। তিনি বলেন, ‘‘এই সব ঘটনা ক্ষমা করা যায় না। কী ভাবে কেউ কর্মীদের হুমকি দিতে পারে? যদি এখানেই (আদালতেই) কেউ নিরাপদ বোধ না করেন, তবে আর কোথায় যাবেন?’’

এই ঘটনার জেরেই প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টার পর থেকে কলকাতা হাই কোর্টের কোর্টরুম বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা করেছেন প্রধান বিচারপতি শিবজ্ঞানম। শুক্রবার একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, গোটা বিষয়টি বৃহত্তর বেঞ্চেও পাঠাবেন তিনি। প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘‘ওই আইনজীবীদের দু’জন অ্যাসোসিয়েশনের সহকারী সম্পাদক ছিলেন। আমি দু’জনের নাম জানতে পেরেছি। আইনজীবী ফাল্গুনী বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজেশ সাহা। এ ছাড়া কারা কারা ছিলেন, আজকে রাতের মধ্যে আমি সবার নাম চাই। প্রয়োজনে এই বিষয়টি বৃহত্তর বেঞ্চে পাঠাব।’’


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ