কলকাতা 

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করা উচিত দাবি কুণালের! এই দাবির নেপথ্যে?

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশেষ প্রতিনিধি : গতকাল শুক্রবার তৃণমূল কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা তথা উত্তর কলকাতার সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় কে বিজেপির এজেন্ট বলে কার্যত মন্তব্য করেছিলেন দলেরই প্রাক্তন মুখপাত্র ও সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ। শুক্রবারের টুইটে তিনি এটাও দাবি করেছিলেন উত্তর কলকাতার লোকসভা কেন্দ্রে লড়াই হবে পদ্মফুলের সঙ্গে আরেক পদ্ম ফুলের। কুণালের ভাষায়, ‘‘উত্তর কলকাতায় এ বার পদ্মফুল বনাম পদ্মফুলের লড়াই হবে। সুদীপবাবু দাঁড়াবেন জোড়াফুলের হয়ে। কিন্তু আসলে তিনি পদ্মফুলের লোক।’’

এই বিস্ফোরক মন্তব্যের পরেই থেমে থাকেননি তৃণমূলের প্রাক্তন মুখপাত্র! আজ শনিবার সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের গ্রেফতারি দাবি করলেন। তার অভিযোগ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় যখন ভুবনেশ্বর জেলে ছিলেন ঠিক তখন তিনি অ্যাপেলো হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। সেই হাসপাতালের খরচ কে দিয়েছিল তা খুঁজে বের করার আহ্বান জানান তিনি আরো বলেন এর সঙ্গে কয়লা দুর্নীতির যোগ থাকতে পারে তা নিয়ে তদন্ত জরুরী।

Advertisement

শনিবার সকালে এক্স হ্যান্ডলে যে পোস্ট কুণাল ঘোষ করেছেন সেটা হবে হোক তুলে ধরা হলো : ‘‘সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এবং তাঁর হয়ে ভুবনেশ্বর অ্যাপোলো হাসপাতালের বিল মেটানোর নথি খতিয়ে দেখা প্রয়োজন। তিনি যখন বন্দি ছিলেন, তাঁকে বড় অঙ্কের টাকা দেওয়া হয়েছিল, না কি তাঁর হয়ে হাসপাতালের বিল কেউ মিটিয়ে দিয়েছিলেন, তদন্ত করে দেখতে হবে। যদি প্রমাণ পাওয়া যায়, তবে কয়লা ‘দুর্নীতি’র সঙ্গে ওই টাকার যোগ থাকতে পারে। সে ক্ষেত্রে তদন্তের স্বার্থে সুদীপকে গ্রেফতার করা উচিত। যদি কেন্দ্রীয় সংস্থা এটি এড়িয়ে যায়, আমি আদালতের দ্বারস্থ হব।’’


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ