দেশ 

জ্ঞানভাপী মসজিদে পুজো করার অনুমতি বহাল রাখল এলাহাবাদ হাইকোর্ট

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : উত্তরপ্রদেশের জ্ঞান-ভাপী মসজিদে পুজো করার অনুমতি দিল এলাহবাদ হাইকোর্ট। এর আগে বারাণসী আদালত জ্ঞানভাপী  মসজিদে ভূগর্ভস্থ দক্ষিণ দিকে প্রকোষ্ঠে পুজো করার অনুমতি দিয়েছিল।

সোমবার হাইকোর্ট মুসলিম পক্ষের তরফে করা নিম্ন আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে করা আর্জি খারিজ করে দিয়েছে। উল্লেখ্য, গত ৩১ জানুয়ারি বারাণসী আদালত এক নির্দেশে জানিয়েছিল, জ্ঞানবাপী মসজিদের ভূগর্ভস্থ দক্ষিণ প্রকোষ্ঠে একজন পুরোহিত নিত্য পুজো করতে পারবেন।

Advertisement

অঞ্জুমান ইন্তজামিয়া মসজিদ কমিটি বারাণসী আদালতের নির্দেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল। কিন্তু, জেলা আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানাতে প্রথমে হাইকোর্টে যেতে বলে শীর্ষ আদালত। মসজিদ কমিটির দাবি, ওই প্রকোষ্ঠে কোনও বিগ্রহ নেই, এবং সেখানে কখনও পুজোপাঠ হয়নি।

ভারতের পুরাতত্ত্ব সর্বেক্ষণ বা এএসআই তার বিস্তারিত রিপোর্টে জানিয়েছিল, জ্ঞানবাপী মসজিদের আগে সেখানে একটি হিন্দু মন্দির ছিল। দক্ষিণের ওই অংশে বেশ কয়েকটি হিন্দু দেবদেবীর বিগ্রহ থাকার প্রমাণ রয়েছে। তার পরেই জেলা আদালত হিন্দুদের পুজো করার অনুমতি দিলে মধ্যরাতে সেখানে ঢুকে আরতি করে পুজো শুরু হয়ে যায়।

আচার্য বেদব্যাস পীঠ মন্দিরের প্রধান পুরোহিত শৈলেন্দ্রকুমার পাঠকের আবেদন ছিল, ওখানে ব্যাস পরিবারের লোক পুজোপাঠ করতেন। ব্রিটিশ যুগেও ওখানে পুজো হতো। কিন্তু ১৯৯৩ সাল থেকে তা বন্ধ হয়ে যায়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে জেলা আদালত জ্ঞানবাপীর ভূগর্ভস্থ দক্ষিণ প্রকোষ্ঠে পুজোর অনুমতি দেয়। জেলাশাসককে দক্ষিণ প্রকোষ্ঠের নিরাপত্তার দায়িত্ব দিয়ে একজন পুরোহিতের সেখানে চারবেলা আরতি ও পুজোপাঠের অনুমতি দেওয়া হয়।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ