জেলা 

তৃণমূলের উপ প্রধানকে গুলি করে খুন! তদন্তে পুলিশ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগরের গুমা এক নম্বর পঞ্চায়েতের উপপ্রধান বিজন দাস কে রবিবার রাতে গুলি করে খুন করলো দুষ্কৃতীরা। তিনি এই এলাকায় জনপ্রিয় নেতা হিসাবে পরিচিত ছিলেন এই খুনের নেপথ্যে কারা রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।রবিবার রাতে তাঁকে খুব কাছ থেকে গুলি করা হয়। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

বিজন গুমা ১ পঞ্চায়েতের প্রাক্তন প্রধান। বর্তমানে তিনি উপপ্রধান পদে ছিলেন। রবিবার রাতে তিনি দলের এক কর্মীর বাড়িতে গিয়েছিলেন। অভিযোগ, সে সময় স্থানীয় এক জমি ব্যবসায়ী এবং আরও কয়েক জনের সঙ্গে তাঁর বচসা হয়। ওই ব্যবসায়ীর নাম গৌতম দাস। পুলিশ সূত্রে খবর, বচসা চলাকালীন এক দুষ্কৃতী বিজনের খুব কাছে পৌঁছে যান এবং তাঁকে গুলি করে। পর পর দু’টি গুলি করা হয় বলে অভিযোগ। বিজনের কানে এবং মাথায় গুলি লাগে।

Advertisement

গুরুতর জখম অবস্থায় বিজনকে নিয়ে যাওয়া হয় বারাসত হাসপাতালে। কিন্তু চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় অশোকনগর থানার পুলিশ। তারা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। কয়েক জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।

স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, বিজন পঞ্চায়েতের উপপ্রধান হওয়ার পর থেকেই দলের অভ্যন্তরে নানা স্তরে গোষ্ঠীকোন্দল দানা বেঁধেছিল। তবে রাজনৈতিক কারণে এই খুন কি না, তা স্পষ্ট নয়।বিজনের মৃত্যুর খবর পেয়ে রাতেই হাসপাতালে আসেন বারাসতের সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার। তিনি বলেন, ‘‘মর্মান্তিক ঘটনা। বিজনের মৃত্যুতে দলের অপূরণীয় ক্ষতি হল। ছাত্র রাজনীতি থেকে শুরু করে ও দলের সঙ্গে ছিল। ওকে এ ভাবে খুন হতে হল, এটা আমার কাছে অবিশ্বাস্য লাগছে। পুলিশ তদন্ত করছে।’’


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ