দেশ 

৫৪৫ কেজি পেঁয়াজ বেচে মাত্র ২১৬ টাকা পেয়ে , ক্ষোভে অভিমানে মুখ্যমন্ত্রীর ত্রান তহবিলে পাঠালেন কৃষক ! কোন রাজ্যে ঘটেছে মোদীর এই“ আচ্ছে দিন “?

শেয়ার করুন
  • 17
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : নরেন্দ্র মোদীর স্বপ্নের আচ্ছে দিনের বাস্তবায়ন এবার শুরু হয়েছে । কৃষক মরে মরুক কিন্ত সাধারণ মানুষ তো কম পয়সায় পেঁয়াজ কিনতে পারবে । তাতে দেশের সুদিন ফিরবে । মাত্র ৩৯ পয়সায় এক কেজি পেঁয়াজ ! ভাবা যায় ! একমাত্র যোগী-মোদীর রাজত্বে মিলতে এত সস্তায় পেঁয়াজ ! অবাক হচ্ছেন নাকি ! না অবাক হওয়ার কিছু নেই । খোঁজ নিয়ে দেখুন , দেখতে সত্যিকার আচ্ছে দিনের স্বরুপ । ঘটনার বিবরণ এক সংবাদ মাধ্যম যা জানা গেছে তা তুলে ধরা হল : “মহারাষ্ট্রের নাসিকের ইওলা তহশিলের অন্দরশূল গ্রামের বাসিন্দা কৃষক চন্দ্রকান্ত ভিকান দেশমুখ  ৫৪৫ কেজি পেঁয়াজ বেচে ২১৬ টাকা পেয়েছেন তিনি। যার অর্থ তিনি পেঁয়াজ বেচে কেজিতে ৩৯ পয়সা পেয়েছেন। স্থানীয় কৃষক কমিটির নিলামে দাম ওঠে কেজিতে ৫১ পয়সা। তবে হিসাবে পর কেটে-ছেঁটে তিনি পেয়েছেন কেজিতে ৩৯ পয়সা দর। এমনকী বেচার কাগজও দেখিয়েছেন তিনি।

চন্দ্রাকান্তের বিনীত প্রশ্ন, এবার তিনি ঘর চালাবেন কী করে? ফলে রাগ দেখিয়ে তিনি প্রতিবাদে ২১৬ টাকা মুখ্যমন্ত্রীকে পাঠিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন এই পেঁয়াজ চাষি।

প্রসঙ্গত, এই নাসিক জেলা সারা দেশের পেঁয়াজ উৎপাদনের অর্ধেক করে থাকে। কিছুদিন আগে এখানকার কৃষক ৭৫০ কেজি পেঁয়াজ বেচে ১০৬৪ টাকা পান। তা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে পাঠিয়ে দিয়েছেন তিনি।

নাসিকে যখন ৩৯ পয়সা কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে তখন কলকাতার মানুষ ২০ টাকা কেজি পেঁয়াজ কিনছে । আচ্ছে দিনের স্বপ্ন বাহক কিংবা দেশের চৌকিদার তো এটা করতেই করতে পারতেন নাসিকে পেঁয়াজ চাষিদের স্বার্থে তাদেরকে ন্যুনতম দামে পেঁয়াজ বিক্রি করার ব্যবস্থা করতে । ৩৯ পয়সা পেঁয়াজ যখন ২০ টাকায় কলকাতার বাজারে বিক্রি হয় তখনই প্রশ্ন দেখা দেয় দেশের চৌকিদার তুমি কার ? কৃষকের , সাধারণ মানুষের না , ফড়েদের ? এই আচ্ছে দিন তো দেশের কৃষক-শ্রমজীবী চাননি ।


শেয়ার করুন
  • 17
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment