কলকাতা দেশ 

কৃষকদের দিল্লি চলো অভিযানে পুলিশের অতি সক্রিয়তা নিয়ে কী বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়?

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : তিন রাজ্যের ৩৫০ টি কৃষক সংগঠনের ডাকে দিল্লি অভিযানকে ঘিরে রাজধানীর শহর পুলিশ ও কৃষকদের খন্ড যুদ্ধে উত্তাল হয়ে উঠেছে। কৃষকদের লক্ষ্য করে  কাঁদানে গ্যাস ছুড়েছে পুলিশ। দিল্লী পুলিশের এই অতি সক্রিয়তা নিয়ে মুখ খুললেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ঘটনার তিনি তীব্র নিন্দা করেছেন। এক্স হ্যান্ডলে একটি দীর্ঘ টুইট করে তিনি লিখেছেন, ‘‘দেশের কৃষকদেরই যদি কাঁদানে গ্যাস দিয়ে আক্রমণ করা হয়, তবে দেশ এগোবে কী করে!’’ কেন্দ্রের সমালোচনা করে মমতা প্রশ্ন তুলেছেন, এই কি তবে বিকশিত ভারতের নমুনা?

কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকারকে আক্রমণ করে মমতা লিখেছেন, ‘‘কেন্দ্রীয় সরকার যে কৃষক এবং শ্রমিকদের যথাযথ সাহায্য করতে পারেনি তার প্রমাণ এই ঘটনা। কৃষকদের তাঁদের মৌলিক অধিকারের কথা বলতে চাওয়ার জন্য আক্রান্ত হতে হচ্ছে। আমি কৃষকদের উপর এই আক্রমণের ঘটনার ‘তীব্র নিন্দা’ করছি।’’

Advertisement

https://x.com/MamataOfficial/status/1757317025628881196?s=20

ফসলের ন্যায্য সহায়ক মূল্য, কৃষিঋণ মকুব-সহ একাধিক দাবি নিয়ে পঞ্জাব, হরিয়ানার হাজার হাজার কৃষক দিল্লি যাত্রার ডাক দিয়েছেন । কৃষক আন্দোলন প্রতিরোধের অতীত অভিজ্ঞতা থেকে ‘শিক্ষা’ নিয়ে একাধিক পরিকল্পনা করেছে স্থানীয় প্রশাসন। হরিয়ানা সরকার তড়িঘড়ি দু’টি বড় স্টেডিয়ামে অস্থায়ী জেল তৈরি করেছে। কৃষকেরা মিছিল নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার সময় কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি হলে তাঁদের আটক করে ওই দু’টি জেলে রাখা হবে বলে সূত্রের খবর।

সেই সঙ্গে সাধারণ মানুষ যাতে এই আন্দোলনের জেরে অসুবিধার মুখে না পড়েন সে দিকেও লক্ষ্য রাখা হচ্ছে বলে খবর। কৃষকদের কর্মসূচির আগে দিল্লিতে জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা। এক মাস অর্থাৎ, ১২ মার্চ পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি থাকবে রাজধানীতে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ