দেশ 

‘তোমাদের বাবা-মা আমায় ভোট না দিলে দু’দিন খাবার খাবে না’! স্কুল পরিদর্শনে গিয়ে খুদে পড়ুয়াদের শপথ করালেন বিধায়ক, সমালোচনার ঝড় দেশ জুড়ে

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : স্কুল পরিদর্শনে গিয়ে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বিধায়কের পরামর্শ পড়ুয়াদের বাবা-মা বিধায়ককে ভোট না দিলে তারা যেন দুদিন খাবার না খায়। আর এই বিতর্কিত মন্তব্যের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পরেই মহারাষ্ট্রের রাজনীতিতে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। শিবসেনার (শিন্ডে) গোষ্ঠীর বিধায়ক সন্তোষ বাঙ্গার

সমাজমাধ্যমে সেই ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয়েছে সমালোচনার ঝড়। বস্তুত, গত সপ্তাহেই নির্বাচন কমিশন একটি নির্দেশিকা জারি করে জানায় নির্বাচনী কোনও বিষয়ে নাবালকদের যুক্ত করা যাবে না।

Advertisement

বঙ্গার নিজের বিধানসভা কেন্দ্রে একটি স্কুলে গিয়েছিলেন। সেখানে অনুর্ধ্ব ১০ বছরের পড়ুয়াদের ‘পাঠ’ পড়াতে শোনা যায় তাঁকে। তিনি পড়ুয়াদের ছড়া কেটে কেটে বলতে শেখান, ‘‘সন্তোষ বাঙ্গারকে ভোট দাও, তবেই আমরা খাবার খাব।’’ তার পর বিধায়ককে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘‘যদি তোমাদের বাবা-মা পরের বার নির্বাচনে আমায় ভোট না দেন, তা হলে তোমরা দু’দিন খাবার খাবে না।’’ এ শুনে বাচ্চারাও মাথা নাড়ে। তার পর আবার তিনি ওই ‘ছড়া’ আওড়াতে বলেন। সেই সময় ওই স্কুলের শিক্ষক এবং অশিক্ষক কর্মীদের দেখা যায় হাসিমুখে দাঁড়িয়ে রয়েছেন।

ওই ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল শুরু হয়েছে। মহারাষ্ট্রে এনসিপি এবং কংগ্রেসের তরফে তীব্র সমালোচনা করা হয়েছে বিধায়ক বাঙ্গারের। তাদের অভিযোগ, ওই বিধায়ক যা বলেছেন, তাতে স্পষ্টতই নির্বাচন কমিশনের নির্দেশিকার অবমাননা হয়েছে। কমিশনের উচিত, ওই বিধায়কের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করা।

অন্য দিকে, বিধায়ক বঙ্গার নানা সময়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে থাকেন, গত মাসেই তিনি মন্তব্য করেন যে, নরেন্দ্র মোদী আবার প্রধানমন্ত্রী না-হলে তিনি গলায় দড়ি দেবেন। গত বছরের অগস্ট মাসে একটি সমাবেশে অস্ত্র হাতে নিয়ে ঘুরে বেড়ানোর অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের হয়।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ