কলকাতা 

দিল্লি সফর বাতিল করলেন মুখ্যমন্ত্রী, নেপথ্যে আসল রহস্য কী?

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : সবকিছু ঠিকঠাক ছিল দিল্লিতে মঙ্গলবার ৬ ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রপতি ভবনে ডাকা এক দেশ এক ভোট নিয়ে আলোচনা সভায় যোগ দিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লি যাবেন সোমবার। কিন্তু সোমবার রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর নবান্নে সাংবাদিকদের মুখ্যমন্ত্রী হঠাৎ ই জানালেন তিনি দিল্লি যাচ্ছেন না। ওই বৈঠকে তিনি যোগ দেবেন না! তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় এই বৈঠকে যোগ দেবেন। রাজ্য বাজেটের কারণেই তাঁর এই সফর বাতিল বলে জানিয়েছেন মমতা।

আগামী বৃহস্পতিবার রাজ্য বাজেট পেশ হবে বিধানসভায়। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, সেই কারণেই তাঁকে এই সফর বাতিল করতে হল শেষ মুহূর্তে। বস্তুত, গত কয়েক দিন ধরেই বাজেট নিয়ে ব্যস্ত মুখ্যমন্ত্রী।

Advertisement

মুখ্যমন্ত্রীর দিল্লি সফর নিয়ে রাজনৈতিক মহলে গত কয়েক দিন ধরে বিস্তর আলোচনা ছিল। তৃণমূলের অনেকেও মুখ্যমন্ত্রীর সূচি নিয়ে স্পষ্ট কিছু বলতে পারছিলেন না। অন্য দিকে বাম, কংগ্রেস নেতারা বলতে শুরু করেছিলেন, ‘বোঝাপড়া’ করার উদ্দেশেই দিল্লি যেতে হচ্ছে মমতাকে। প্রদেশ কংগ্রেসের অনেক নেতার ‘আশঙ্কা’ ছিল, দিল্লি গিয়ে কংগ্রেস নেত্রী সনিয়া গান্ধীর সঙ্গেও মমতা দেখা করতে পারেন। যদিও শেষ পর্যন্ত সফর বাতিল করলেন মমতা।

‘এক দেশ, এক ভোট’ সংক্রান্ত বিষয়ে মমতা এর আগেই তাঁর অবস্থান স্পষ্ট করেছেন। তাঁর বক্তব্য, ‘এক দেশ, এক ভোট’-এর অর্থ দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে সঙ্কুচিত করা। যা আসলে সামগ্রিক ভাবে সংবিধান বদলের নামান্তর। এর আগেও কমিটির চেয়ারম্যান তথা দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতিকে এ নিয়ে চিঠি লিখেছিলেন তৃণমূলের সর্বোচ্চ নেত্রী। মমতা চেয়েছিলেন, তিনি নিজে গিয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে আসবেন।

বাজেট অধিবেশন তো অনেক আগে থেকেই ঠিক করা ছিল তারপরেও মুখ্যমন্ত্রী দিল্লি যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি দিল্লি না যাওয়ার সিদ্ধান্তের নেপথ্যে রয়েছে একটি বিশেষ কারণ। রাজনৈতিক মহলের একটা অংশের ধারণা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাহুল গান্ধীর বঙ্গ সফর নিয়ে যে ধরনের কথাবার্তা বলেছেন এবং রাহুলকে কটাক্ষ করেছেন তার প্রভাব এ রাজ্যের রাজনীতিতে পড়েছে ব্যাপকভাবে। মমতা সরকারের  প্রাণবায়ুটা যাদের হাতে রয়েছে সেই সংখ্যালঘু মুসলমান সম্প্রদায় রাহুল গান্ধীকে কটাক্ষ করায় বেশ খানিকটা ক্ষুব্ধ।

অন্যদিকে বাম এবং রাজ্য কংগ্রেসের পক্ষ থেকে দীর্ঘদিন ধরে প্রচার করা হচ্ছিল দিদি এবং মোদির সঙ্গে সেটিং রয়েছে। এই সেটিং তত্ত্বটা সম্প্রতি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাহুল গান্ধীকে কটাক্ষ করতে গিয়ে বেআব্রু হয়ে ধরা পড়ে যায়। আবার দিল্লি যাওয়ার সংবাদ ছড়িয়ে পড়ার পর বিরোধীরা বলতে শুরু করে রাহুলকে কটাক্ষ করার পর এবার দিল্লি যাচ্ছেন দিদি মোদীর কাছে ভালো সাজার জন্য। বাম কংগ্রেসের এই প্রচারে এ রাজ্যের জনমানষে বেশ খানিকটা প্রভাব পড়েছে তাই শেষ মুহূর্তে মুখ্যমন্ত্রী বাধ্য হলেন দিল্লি সফর বাতিল করতে?

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ