দেশ 

রাহুলের ভূয়শী প্রশংসা, রাজনীতিতে দুমাস অনেকটা সময়, বিরোধীরা চাইলেই চমক দেখাতে পারেন ! দাবি পিকের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : রাহুল গান্ধীর ভারত জোড়ো ন্যায় যাত্রা নিয়ে কযেক দিন আগেও কটাক্ষ করলেও এখন আবার অন্য সুরে কথা বলছেন ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোর । রাহুল গান্ধীর ন্যায় যাত্রায় লক্ষ লক্ষ মানুষের সমাগম দেখে দেশের সব রাজনৈতিক দলই উদ্বেগের মধ্যে রয়েছে । বিশেষ করে আঞ্চলিক দলগুলি । মনিপুর থেকে যে যাত্রা শুরু হয়েছিল তা নাগাল্যান্ড-অসম হয়ে বাংলায় প্রবেশ করার রীতিমতো জনসমুদ্রে পরিণত রাহুলের সভাগুলি । তাই প্রশান্ত কিশোর ইন্ডিয়া টিভির আপ কী আদালত অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে রাহুলের ভূয়শী প্রশংসা করেন । এই সাক্ষাৎকারে ওয়েনাড়ের কংগ্রেস সাংসদের প্রশংসা করে পিকে বলেন, “গত দশ বছরে ৯০ শতাংশ নির্বাচনে হেরেও রাহুল ভেঙে পড়েননি। তাঁর মনোবল অটুট থেকেছে। তিনিও ইতিবাচক মনোভাব নিয়েই এগোচ্ছেন।”

একই সঙ্গে মোদী এবং রাহুলের মধ্যে তুলনা টেনে পিকে জানান, দু’জন সম্পূর্ণ আলাদা প্রেক্ষাপট থেকে জাতীয় রাজনীতিতে উঠে এসেছেন। মোদীর কোন গুণটি তাঁকে অন্য নেতাদের তুলনায় রাজনীতিতে কয়েক কদম এগিয়ে দিয়েছে, সে কথা ব্যাখ্যা করে পিকে বলেন, “৪৫ বছরের রাজনৈতিক জীবনে মোদী প্রথম ১৫ বছর রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘ (আরএসএস)-এর প্রচারক হিসাবে কাজ করেছেন। তার পরের ১৫ বছর কাজ করেছেন বিজেপির সংগঠক হিসাবে। শেষ ১৫ বছর তিনি মুখ্যমন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব সামলেছেন।” এই প্রসঙ্গে পিকের সংযোজন, “দেশের খুব কম নেতারই মোদীর মতো এত বিপুল অভিজ্ঞতা রয়েছে।”এখনই লোকসভা ভোট হলে বিজেপি এবং তাদের পরিচালিক জোট এনডিএ অনেকটাই এগিয়ে থাকবে, এমনটা দাবি করেও পিকে বলেন, “রাজনীতিতে দু’মাস অনেকটা সময়।” সে ক্ষেত্রে বিরোধীরাও চাইলে ভোটের ফলে যে চমক দেখাতে পারেন, সে ইঙ্গিতই দিতে চেয়েছেন এই ভোটকুশলী।

Advertisement

বিরোধী নেতাদের মধ্যে অনেকেই বিজেপিকে রুখতে ‘একের বিরুদ্ধে এক’ লড়াইয়ের ফর্মুলা দিচ্ছেন। পিকে অবশ্য এই বিষয়টিকে গুরুত্বহীন বলে দাবি করেছেন। তাঁর কথায়, “আপনি বিজেপির বিরুদ্ধে এক জন প্রার্থী দাঁড় করালেন না দু’জন, সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। আপনি যদি ৩৫০টা আসন জয়ের লক্ষ্যে ঝাঁপান, অন্তত আপনাকে ১২৫ থেকে ১৫০টি আসনে জিততে হবে। তা হলেই বিরোধীরা বিজেপিকে সরাতে পারবে।” পিকে এ-ও জানিয়েছেন যে, তিনি আর কোনও দলের হয়েই ভোটকৌশল রচনার কাজ করতে চান না। তার পরিবর্তে বিহারে নিজের ‘জন সুরজ’ মঞ্চের কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে চান তিনি।

প্রশান্ত কিশোর একজন ভোট বিশেষঞ্জ হিসাবে যে দাবি করেছেন তার সঙ্গে আমরাও একমত । কংগ্রেস কমপক্ষে ১৫০ আসন পেলে তবেই বিজেপিকে হারানো সম্ভব বলে পিকের অভিমত ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ