দেশ 

পাল্টি খেতেই নীতিশ কুমারকে বিশ্বাসঘাতক বলে অভিহিত করল কংগ্রেস

শেয়ার করুন

বাংলার জনরব ডেস্ক : ইন্ডিয়া জোটের অন্যতম প্রবক্তা নীতিশ কুমার বিহারের মহাগঠবন্ধন ত্যাগ করে বিজেপি জোটে যোগ দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে কংগ্রেস তাকে বিশ্বাসঘাতকতা বলে অভিহিত করল। তাকে গিরগিটির সঙ্গে তুলনা করেছে কংগ্রেস। আজ রবিবার প্রত্যাশা মত বিহারের মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করে বিকেলেই শপথ নিলেন নীতিশ কুমার বিজেপির সমর্থন নিয়ে।

কিন্তু পদত্যাগের পরই ইন্ডিয়া জোটকে তিনি কটাক্ষ করতে ছাড়েননি। তিনি এদিন বলেন,জোট তৈরি হয়েছে ঠিকই, কিন্তু সেই জোটে কেউই ঠিক মতো কাজ করছে না। তাই বিরোধী জোট ‘ইন্ডিয়া’র সঙ্গ তিনি ছেড়ে দিলেন। কারণ, তাঁর প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ হয়েছে ‘ইন্ডিয়া’। রবিবার মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পরই বিরোধী জোট ‘ইন্ডিয়া’কে খোঁচা দিতেও ছাড়লেন না জনতা দলের (ইউনাইটেড) প্রধান নীতীশ কুমার।

Advertisement

নীতীশ যে জোট ছেড়ে বেরিয়ে যাবেন, তা আগেই আভাস পেয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খড়্গে। তাঁর ‘মানভঞ্জনের’ শেষ চেষ্টাও করা হয়েছিল কংগ্রেসের তরফে। সূত্রের খবর, নীতীশকে বেশ কয়েক বার ফোনও করেন খড়্গে। কিন্তু তিনি ফোন ধরেননি। রবিবার নীতীশ ইস্তফা দিতেই খড়্গে বলেন, “বিহারের উপমুখ্যমন্ত্রী তেজস্বী যাদব এবং লালু প্রসাদ যাদব আমাকে আগেই এ বিষয়ে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। আজ তা সত্যি হল। তবে দেশে এমন অনেক লোক আছেন যাঁরা আয়া রাম, গয়া রাম গোত্রের মধ্যে পড়েন।” হাবেভাবে তিনি বুঝিয়েও দিতে চেয়েছেন যে, নীতীশের জোট ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়াটা খুব একটা চাপ হবে না ‘ইন্ডিয়া’র। তবে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের একাংশ বলছেন, কংগ্রেস যতই স্বাভাবিক ভাবে বিষয়টি দেখানোর চেষ্টা করছে, নীতীশ কিন্তু একটা ‘অস্বস্তির’ কাঁটা রেখেই গেলেন।

কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ বলেছেন, “নীতীশ কুমার যে ভাবে দলবদলের খেলা শুরু করেছেন, যে ভাবে রং বদলাচ্ছেন, তাতে গিরগিটিকেও কড়া টক্করের মধ্যে পড়তে হবে। এই বিশ্বাসঘাতককে বিহারের জনতা মাফ করবে না। এই ঘটনা থেকে এটা স্পষ্ট যে, কংগ্রেসের ‘ন্যায় যাত্রা’য় ভয় পেয়ে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।”

 


শেয়ার করুন

সম্পর্কিত নিবন্ধ