জেলা 

ফের চোট পেলেন মুখ্যমন্ত্রী! বর্ধমান থেকে কলকাতা ফেরার পথে কী এমন ঘটল?

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : ফের চোট পেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।বর্ধমানে প্রশাসনিক সভা সেরে ফেরার পথে গাড়ি আচমকা ব্রেক কষায় কপালে সামান্য আঘাত পেয়েছেন তিনি বলে জানা গেছে। বুধবার বর্ধমানের গোদার মাঠে প্রশাসনিক সভা ছিল মমতার। সভা শেষে কলকাতা ফেরার জন্য গাড়িতে ওঠেন মুখ্যমন্ত্রী। সভাস্থল থেকে চড়াই পথে জিটি রোডে ওঠার মুখে আচমকাই ব্রেক কষেন গাড়িচালক। সেই ঝাঁকুনিতেই কপালে আঘাত পান মুখ্যমন্ত্রী। যদিও গাড়ি না-থামিয়ে মমতা সরাসরি কলকাতার উদ্দেশে রওনা দেন। এক প্রত্যক্ষদর্শীর দাবি, আঘাত পাওয়ার পরেই কপালে রুমাল বেঁধে নেন মুখ্যমন্ত্রী।

বুধবার বেলা সাড়ে ১২টা নাগাদ সভা শুরু করেন মমতা। বর্ধমান গিয়েছিলেন হেলিকপ্টারে। কিন্তু সভা শেষ হওয়ার আগেই আবহাওয়া খারাপ হতে শুরু করে। কুয়াশার পাশাপাশি শুরু হয় বৃষ্টি। তত ক্ষণে সিদ্ধান্ত হয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী আর হেলিকপ্টারে ফিরবেন না। সড়কপথেই কলকাতায় পৌঁছবেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, সভার মাঠ থেকে বড় রাস্তায় ওঠার সময় মুখ্যমন্ত্রী যে গাড়িতে বসেছিলেন তার চালক আচমকাই ব্রেক কষেন। সেই ঝাঁকুনিতে মমতা কপালে সামান্য আঘাত পেয়েছেন।

Advertisement

বুধবার সকালেই হাওড়ার ডুমুরজলা স্টেডিয়ামের হেলিপ্যাড থেকে মুখ্যমন্ত্রী হেলিকপ্টারে চেপে যান বর্ধমানে। কথা ছিল, সভা শেষ করে আবার হেলিকপ্টারেই ডুমুরজলায় নেমে কলকাতা ফিরে আসবেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু আবহাওয়া খারাপ থাকায় মুখ্যমন্ত্রীর হেলিকপ্টারের বদলে সড়কপথে কলকাতা ফেরার সিদ্ধান্ত হয়।

গত বছরের ২৭ জুন জলপাইগুড়ির ক্রান্তির সভাস্থল থেকে হেলিকপ্টারে বাগডোগরা পৌঁছনোর কথা ছিল মুখ্যমন্ত্রীর। কিন্তু, মাঝপথে দুর্যোগের মুখে পড়ে মুম্বইয়ের একটি সংস্থা থেকে ভাড়া নেওয়া সেই হেলিকপ্টার। দৃশ্যমানতা প্রায় তলানিতে চলে যায়। ঝড়বৃষ্টিতে বিপজ্জনক ভাবে দুলতে থাকে হেলিকপ্টারটি। বেগতিক দেখে হেলিকপ্টারের দুই পাইলট শালুগাড়ায় সেনাবাহিনীর হেলিপ্যাডে মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে জরুরি অবতরণ করেন। অভিযোগ, খারাপ আবহাওয়ার জন্য দুলুনিতে এবং শালুগাড়ায় সিঁড়ি না থাকায় হেলিকপ্টার থেকে নামতে গিয়ে কোমরে ও হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই চোট নিয়ে দুর্ভোগ কিছু দিন আগে পর্যন্তও কাটেনি মুখ্যমন্ত্রীর। বারে বারেই চিকিৎসা করাতে যেতে হয়েছে এসএসকেএম হাসপাতালে। ওই চোটের কারণে সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রীর কাঁধে অস্ত্রোপচার করাতে হয়।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ