জেলা বিনোদন, সংস্কৃতি ও সাহিত্য 

বিধায়ক রমেন্দু সিংহ রায়ের উদ্যোগে আনন্দমেলা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি: বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে তারকেশ্বর বিধানসভার অন্তর্গত কোটালপুর বিপ্লবী সংঘের সম্পাদক, বিধায়ক রামেন্দু সিংহ রায়ের উদ্যোগে কোটালপুর আনন্দমেলার উদ্বোধন হয়ে গেল শনিবার ২১শে জানুয়ারি কোটালপুর মাঠে। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন হুগলির জেলা শাসক মুক্তা আর্য, জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন জেলাশাসক। বিপ্লবী সংঘের পতাকা উত্তোলন করেন বিধায়ক ও তারকেশ্বর উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান রামেন্দু সিংহরায়। প্রধান অতিথি ছিলেন হুগলী জেলা পরিষদের সভাধিপতি রঞ্জন ধারা,সম্মানীয় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চন্দননগরের মহকুমা শাসক বিষ্ণু দাস, তারকেশ্বরের বি.ডি.ও সীমা চন্দ, ধনিয়াখালীর বি.ডি.ও সারোয়ার আলী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র অভিনেতা খরাজ মুখোপাধ্যায়, প্রজ্ঞানন্দ সরস্বতী মহারাজ, বাসুবাটী দরবারের পীরজাদা জনাব ইসলাম সাহেব, আস্তারা ইসকন মন্দিরের পিনাকী দাস মহারাজ ও বিশিষ্ট সাংবাদিক নৌশাদ মল্লিক, খরাজ মুখোপাধ্যায়ের নাটিকা সকল দর্শকদের মুগ্ধ করে।

অনুষ্ঠানে জেলা পরিষদের সভাধিপতি রঞ্জন ধারা বলেন এখানকার এম.এল.এ রামুদা আমাদের প্রেরণা। মমতা বন্দোপাধ্যায়ের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে কর্মযজ্ঞে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন। জেলাশাসক মুক্তা আর্য বলেন এই সাত দিন ধরে এখানে কৃষি,পুষ্প, বিজ্ঞান প্রদর্শনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আমি সাফল্য কামনা করি এবং রামেন্দু সিংহ রায়ের এই উদ্যোগকে আমি অভিনন্দন জানাই।

Advertisement

পরিশেষে তিনি মেলার কৃষি ও বিজ্ঞান প্রদর্শনীর উদ্বোধন করে মুগ্ধ হন। জেলার বিভিন্ন প্রান্তর থেকে বহু মানুষ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন। আরামবাগ মহকুমার বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান, পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ ও জেলা পরিষদের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ