দেশ 

”শংকরাচার্যরা বলুন হিন্দুধর্মের জন্য ওঁদের অবদান কী?” চার শঙ্করাচার্যকে নিয়ে বেনজীর মন্তব্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নারায়ন রানের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক :  রাম মন্দির উদ্বোধনে দেশের দুই শঙ্করাচার্য উপস্থিত থাকতে পারেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের এই দাবির পরেও ধর্মগুরুদের প্রতি কটাক্ষ চালিয়ে যাচ্ছে বিজেপির নেতারা। ভারতের হিন্দু ধর্মের চার প্রধান ব্যক্তিত্ব যারা শংকরাচার্য নামে পরিচিত তাদেরকে ক্রমাগত আক্রমণ করে চলেছে বিজেপির আইটি সেল এবং কিছু বিজেপি নেতা। এবার নরেন্দ্র মোদির মন্ত্রিসভার অন্যতম এক সদস্য নারায়ন রানের সাংবাদিকদের বলেছেন রাম মন্দির নিয়ে সমালোচনা না করে আশীর্বাদ করা উচিত ওই চার শংকরাচার্যের। তিনি খানিকটা কটাকে সুরে বলেছেন ওই চার শংকরাচার্য হিন্দু ধর্মের জন্য কি করেছেন ?

মহারাষ্ট্রের পালঘরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন রানে। সেখানেই তাঁকে বলতে শোনা যায়, ”ওঁদের মন্দিরকে আশীর্বাদ করা উচিত নাকি সমালোচনা করা উচিত? এর মানে হল শংকরাচার্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (PM Modi) রাজনৈতিক দৃষ্টিকোণ থেকে দেখেন। এই মন্দির রাজনীতির ভিত্তিতে নয়, ধর্মের ভিত্তিতে তৈরি। রাম আমাদের ভগবান।” সেই সঙ্গে তাঁর আরও প্রশ্ন, ”শংকরাচার্যরা বলুন হিন্দুধর্মের জন্য ওঁদের অবদান কী?”

Advertisement

প্রসঙ্গত, উত্তরাখণ্ডের জ্যোতিষপীঠের শঙ্করাচার্য স্বামী অভিমুক্তেশ্বরানন্দ সরস্বতী জানিয়েছেন, চার শংকরাচার্য ২২ জানুয়ারি রামমন্দিরের উদ্বোধনের দিন সেখানে উপস্থিত থাকবেন না। কেননা সনাতন ধর্মের নিয়ম লঙ্ঘিত হচ্ছে এই অনুষ্ঠানে। তবে সেই সঙ্গেই তিনি জানিয়েছেন, ”আমাদের কারও বিরুদ্ধে কোনও ক্ষোভ নেই।” পাশাপাশি তাঁর দাবি, খুব তাড়াহুড়ো করে এই মন্দির উদ্বোধন হচ্ছে। তিনি বলেন, মন্দির পুরোপুরি তৈরি না করেই রামলালার প্রাণপ্রতিষ্ঠা শাস্ত্রবিরুদ্ধ। এর পর থেকেই বিতর্ক ঘনিয়েছে।

যদিও দুজন শংকরাচার্য রামমন্দিরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন বলে দাবি করেছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। সব মিলিয়ে রামমন্দির উদ্বোধনের আগে শংকরাচার্যদের সেখানে উপস্থিত থাকা নিয়ে সংশয় ঘিরে ক্রমেই পারদ চড়ছে বিতর্কের। আর এই আবহে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নারায়ণ রানের এই ধরনের মন্তব্য হিন্দু সমাজকে আরো বিক্ষুব্ধ করে তুলতে পারে বলে ওয়াকিবহালমহল মনে করছে।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ