কলকাতা 

বাংলাকে উত্তরপ্রদেশ কিংবা মনিপুর হতে দেব না : মোহাম্মদ সেলিম

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : ৫০ দিন ধরে ইনসাফ যাত্রার পর আজ ৭ই জানুয়ারি রবিবার ছিল সিপিএমের যুব সংগঠন ডি ওয়াই এফ আই এর ব্রিগেড সমাবেশ। এই সমাবেশ মঞ্চ থেকে এদিন বামপন্থী যুব নেতারা বিজেপি এবং তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ডাক দেন। সভার শেষ বক্তা ছিলেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক মোহাম্মদ সেলিম। তিনি এদিন স্বভাব সিদ্ধ ভঙ্গিতে বামপন্থীদের ঘুরে দাঁড়ানোর ডাক দেন। সেলিম এদিন বলেন, বাংলাকে উত্তর প্রদেশ কিংবা মনিপুর হতে দেব না। সেলিমের ভাষণের সিংহভাগ জুড়ে ছিল বিজেপি এবং তৃণমূলের আঁতাত সম্পর্কে।

সেলিমের কথায়, ‘‘মণিপুরে বিজেপির সরকার। দিল্লিতেও। যাঁরা বলছেন, মমতাকে সরিয়ে বিজেপিকে আনতে হবে, তাঁদের বলি, বিচারপতি অমৃতা সিংহ বলেছেন, ২০১৪ সাল থেকে ভাইপোর সম্পত্তি বৃদ্ধি পেয়েছে। ওই সময় দিল্লিতে এসেছে বিজেপি। আসলে বিজেপি যবে থেকে এসেছে, তৃণমূলের হাত শক্ত হয়েছে। যখন চৌকিদারই চোর, তখন আর কী হবে।’’

Advertisement

এক জন ‘কাকু’র কণ্ঠস্বর পরীক্ষা করতে ছ’মাস সময় লাগলে পিসির কণ্ঠস্বর নিতে কত সময় লাগবে? অঙ্কের কথা মনে করিয়ে দিয়ে কটাক্ষ করলেন সেলিম। মনে করালেন নিয়োগ দুর্নীতিকাণ্ডে অভিযুক্ত সুজয়কৃষ্ণ ভদ্রের কণ্ঠস্বর পরীক্ষার বিষয়টি। তিনি আরও বলেন, ‘‘ওঁর একটাই লক্ষ্য, পরিবারকে রক্ষা করা।’’

ভিড় ব্রিগেডে দাঁড়িয়ে বাম নেতা-নেত্রীরা একটি বিষয় স্পষ্ট করলেন, সুবিচার চেয়ে লড়াই শেষ নয়, বরং এই ব্রিগেডের মাঠ থেকেই শুরু হল। রবীন্দ্রসঙ্গীত, বর্তমানে রাজ্য সঙ্গীত ‘বাংলার মাটি, বাংলার জল’ দিয়ে শুরু হয় সভা। সমাবেশের শেষে ভারতীয় সংবিধানের প্রস্তাবনা পাঠ করেন মিনাক্ষী। জানান, এই প্রস্তাবনা মেনে শুরু হবে বামেদের লড়াই। ‘লাল সেলাম’, ‘অভিনন্দন’ জানিয়ে এর পর শেষ হয় সমাবেশ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ