কলকাতা 

বাংলাদেশের ৫৩তম (৫২ বর্ষ)মহান বিজয় দিবস উদযাপন

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোহাম্মদ সাদউদ্দিন,কলকাতা,১৬ ডিসেম্বর :জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশন, কলকাতায় দুই দিন ব্যাপী মহান বিজয় দিবস উদযাপন করা হচ্ছে।

শনিবার সকালে কলকাতা উপ-হাইকমিশন প্রাঙ্গনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর বঙ্গবন্ধুর আবক্ষ ভাস্কর্য “মুজিব চিরঞ্জীব”-এ পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এছাড়া কলকাতায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও সোনালী ব্যাংক লিমিটেড-এর কর্মকর্তা/কর্মচারিবৃন্দও বঙ্গবন্ধুর আবক্ষ ভাস্কর্যে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। কাউন্সিলর (শিক্ষা ও ক্রীড়া) রিয়াজুল ইসলাম মহামান্য রাষ্ট্রপতি, কাউন্সিলর (কনস্যুলার) এএসএম আলমাস হোসেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, কাউন্সিলর (রাজনৈতিক) তুষিতা চাকমা মাননীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রী এবং দ্বিতীয় সচিব (রাজনৈতিক) শেখ মারেফাত তারিকুল ইসলাম মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত বাণী পাঠ করেন। এরপর অনুষ্ঠানের সভাপতি মান্যবর উপ-হাইকমিশনার আন্দালিব ইলিয়াস-এর বক্তব্যের মাধ্যমে সকালের অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

Advertisement

দ্বিতীয় ধাপে বিকেলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে পশ্চিমবঙ্গের কৃষি ও পরিষদ বিষয়ক মাননীয় মন্ত্রী শ্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় ১৯৭১ সালের স্মৃতিচারণ করে বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালীর অন্যতম শ্রেষ্ঠ রাষ্ট্রনায়ক।

উপ-হাইকমিশনার আন্দালিব ইলিয়াস সমাপনী বক্তব্যে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীনতার স্থপতি, বাংলাদেশের জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অসামান্য সহায়তার জন্য ভারতের, বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গের জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। বাংলাদেশ-ভারতের গভীর বন্ধুত্বের প্রসঙ্গে তিনি আশা প্রকাশ করেন যে উন্নয়ন যাত্রায় বাংলাদেশ এবং ভারত একসঙ্গে এগিয়ে যাবে।

শেখ মারেফাত তারিকুল ইসলাম, দ্বিতীয় সচিব (রাজনৈতিক) এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানটি পরিচালিত হয়।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ