জেলা 

WBTMTA এর উদ্যোগে শাসনে শিক্ষা বিষয়ক কর্মশালা ও পর্যালোচনায় চাঁদের হাট

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিবেদক,শাসন :  সুদুর প্রাচীন কাল থেকে শিক্ষার সার্বিক মান্নোনয়নে মাদ্রাসা শিক্ষা অন্যতম ভূমিকা পালন করছে। ঐতিহ্যবাহী মাদ্রাসা শিক্ষা পুরো বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রচারের জন্য অনেক মহাপুরুষদের সুচিন্তিত মতামত গ্রহণ করেছে। ভারতের মতো বৈচিত্র্য পূর্ণ দেশে যখন কিছু বিভেদকামী শক্তি মানুষের মধ্যে জাত পাতের রাজনীতি করতে চাইছে, তাকে পরাস্ত করতে তৃণমূল কংগ্রেস দলের শাখা সংগঠন হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় দীর্ঘমেয়াদী লড়াই সংগ্রাম করে চলেছে পঃবঃ তৃণমূল মাদ্রাসা টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন।যার সর্বাগ্রে আছেন সংগঠনের রাজ্য সভাপতি তথা উঃ ২৪ পরগনা জেলা পরিষদের বন ও ভূমি স্থায়ী সমিতির কর্মাধ্যক্ষ একেএম ফারহাদ।বলাবাহুল্য মাদ্রাসা শিক্ষার অগ্রগতিতে অনন্য ভূমিকা গ্রহণ করে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস অনুমোদিত একমাত্র মাদ্রাসা শিক্ষক সংগঠন, পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল মাদ্রাসা টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন। ২০১১ সালে পরিবর্তনের পর থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের প্রতিটি পদক্ষেপ মানুষের দুয়ারে দুয়ারে পৌঁছে দেওয়ার পাশাপাশি, শিক্ষার্থীর সার্বিক কল্যাণ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অগ্রগতি ও শিক্ষক সমাজের প্রয়োজনীয় বিষয় নিয়ে সর্বাগ্রে অনন্য কর্মসূচি রূপায়িত হয়েছে সংগঠনের রাজ্য সভাপতি একেএম ফারহাদ এর প্রচেষ্টায়।

১৩ ই ডিসেম্বর বুধবার পঃবঃ তৃণমূল মাদ্রাসা টিচার্স অ্যাসোসিয়েশনের উঃ ২৪ পরগনা জেলা কমিটির উদ্যোগে জেলার শাসন থানার অন্তর্গত আমিনপুর কেএমসি সিনিয়র মাদ্রাসায় শিক্ষা বিষয়ক কর্মশালা ও সাংগঠনিক সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত কর্মসূচিতে সংগঠনের রাজ্য সভাপতি তথা উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ ও তৃণমূল কংগ্রেসের দীর্ঘদিনের লড়াই করা নেতা একেএম ফারহাদ বলেন, মাদ্রাসার সার্বিক কল্যাণে রাজ্য সরকারের মুখ্যমন্ত্রী শ্রীমতি মমতা ব্যানার্জি না চাইতে যা দিয়েছে তা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। উক্ত দিনের কর্মসূচি প্রসঙ্গে তিনি বলেন গণ্যমান্য পন্ডিত মানুষদের উপস্থিতিতে অত্যন্ত ফলপ্রসূ পর্যালোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। তিনি আরও বলেন মাদ্রাসার শিক্ষা পর্ষদের নির্দেশিকা মত এই সংগঠন শ্রেণী ভিত্তিক প্রশ্নপত্র করে চলেছে।

Advertisement

বিগত দিনের মতো আগামী দিনগুলিতেও সরকারের প্রত্যেকটা উন্নয়নমুখী কর্মসূচিকে সামনে রেখে মাদ্রাসার শিক্ষকরা দুয়ারে দুয়ারে পৌঁছে যায়। একই সঙ্গে পরিবর্তনের পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে শিক্ষকদের জন্য যে সমস্ত সুযোগ-সুবিধা চালু হয়েছে তা অনন্য বলে তিনি দাবি করেন। বাংলার জনদরদী মুখমন্ত্রী শ্রীমতি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রচেষ্টায় শিক্ষার আধুনিকীকরণে স্মার্ট ক্লাস, উন্নত প্রযুক্তির কম্পিউটার সায়েন্স ল্যাবরেটরি, লাইব্রেরি প্রভৃতিতে সরকারের যে অবদান শিক্ষার মানকে উন্নয়ন করার জন্য তা বিগত দিনে কোন সরকার করেনি। সংখ্যালঘু খাতে অর্থের বরাদ্দ যেভাবে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে বিতরণ করা হয় তা দেশের কোনও রাজ্যে নেই বলে তিনি মনে করেন ।

মাদ্রাসা শিক্ষার উন্নয়নের সাথে সাথে সংখ্যালঘুদের যে কোন বিষয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস সাধারণ সম্পাদক সাংসদ শ্রী অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, দলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি, রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের মতো নেতৃত্বদের নির্দেশ এবং সংখ্যালঘু দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী তাজমুল হোসেন, দফতরের প্রধান সচিব গোলাম আলী আনসারি, বিশেষ সচিব সাকিল আহমেদ, সহ মাদ্রাসা শিক্ষা অধিকর্তা ও মাদ্রাসা শিক্ষা পর্ষদের সভাপতিদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগের মধ্যে দিয়ে শিক্ষার আধুনিকীকরণ আরো কিভাবে সম্ভব এই সংগঠন সেই কর্মসূচি নিয়ে চলেছে।

পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল মাদ্রাসা টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন এর পক্ষ থেকে উক্ত কর্মসূচির উদ্ধোধক পরবর্তী বসিরহাট সাংগঠনিক জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা হাড়োয়ার বিধায়ক হাজী সেখ নূরুল ইসলাম বলেন মাদ্রাসা শিক্ষার সর্বাঙ্গীন মান্নানোয়নে একেএম ফারহাদ এর নেতৃত্বে অসাধারণ কাজ করে চলেছে। মাদ্রাসা শিক্ষার অবিসংবাদিত নেতা হিসাবে তৃণমূল কংগ্রেসের নির্দেশ মতো ফারহাদের সভাপতিত্বে শিক্ষক শিক্ষিকাদের কাজ অসাধারণ।

ভার্চুয়ালী বক্তব্যে দলের সহ-সভাপতি শ্রী জয়প্রকাশ মজুমদার বলেন মাদ্রাসা শিক্ষার উন্নয়নে পঃবঃ তৃণমূল মাদ্রাসা টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন এর রাজ্য সভাপতি হিসাবে ফারহাদ এর নেতৃত্বে গঠনমূলক কাজে অগ্ৰগন্য ভূমিকা পালন করে চলেছে। আগামী দিনে এই সংগঠনের কাজে দল সর্বতোভাবে পাশে থাকার অঙ্গীকার করেন। পুবের কলম পত্রিকার সম্পাদক তথা পঃবঃ সংখ্যালঘু কমিশনের চেয়ারম্যান আহমেদ হাসান ইমরান তাঁর বক্তব্যে তুলে ধরেন বর্তমান সময়ে দেশের মধ্যে যে বিভাজন সৃষ্টি হয়েছে তা নিরসনে সকলের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা রাখতে হবে। ফারহাদ ভাই এর এর ঐতিহাসিক কর্মসূচিতে অত্যন্ত সুন্দরভাবে কাজ পরিচালিত হচ্ছে। আলিয়া ইউনিভার্সিটির রেজিষ্ট্রার সৈয়দ নূরুস সালাম তাঁর বক্তব্যে মাদ্রাসা শিক্ষার উন্নয়নে পঃবঃ সরকার যে সমস্ত কর্মসূচি পালন করে চলেছে তা সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করতে সকলের সহযোগিতার কথা বলেন। মাদ্রাসার উন্নতিকল্পে ফারহাদ এর নেতৃত্বে গঠনমূলক কাজ অত্যন্ত প্রশংসনীয়। মাদ্রাসা শিক্ষা পর্ষদের উপসচিব ডঃ আজিজার রহমান বলেন শিক্ষার উন্নতিতে এই ধরনের কর্মসূচি অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। যে গঠনমূলক দৃষ্টিভঙ্গি উপস্থাপিত হল তা শিক্ষা কেন্দ্রগুলিতে পরিচালনা করার প্রচেষ্টা শিক্ষকন্ডলীকে চালিয়ে যাওয়ার বার্তা রাখে। আলিয়া ইউনিভার্সিটি আরবি সাহিত্যের প্রাক্তন অধ্যাপক মাওলানা মনজুর আলম সাধুবাদ জানান সংগঠনের সভাপতি সহ প্রত্যেকে।

উক্ত কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন বারাসাত -২ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি শ্রী শম্ভুনাথ ঘোষ,স্থানীয় পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মনোয়ারা বিবি, সহ-সভাপতি মেহেদী হাসান, প্রধান মনিরুল ইসলাম (মনি), মান্নান আলি,মানস কুমার ঘোষ,আছের আলি, সাবিনা খাতুন,রাখি মন্ডল। শিক্ষক সমাজের তিন শতাধিক শিক্ষক শিক্ষিকাদের উপস্থিতিতে গঠনমূলক কর্মসূচিতে নেতৃত্বের মধ্যে ছিলেন মাদ্রাসা বোর্ডের সদস্য মোজাফফর হোসেন,কুতুব আক্তার,নূরুল হক, নূরুল হক বৈদ্য, মনিরুল মোল্লা, সওকাত হোসেন পিয়াদা,সৈয়দ কামার নাসির, ওসমান গনি,মাওঃ মুফতি আসরাফ আলি, খালেক খান, জাকির হোসেন, শাহাবুদ্দিন চৌধুরী, কামরুজ্জামান রেজাউল ইসলাম, হাফিজুর রহমান,প্রাক্তন সুপারিনটেনডেন্ট ইমান আলী, অ্যাসিস্ট্যান্ট সুপারিনটেনডেন্ট আবুল কালাম,সুপারিনটেনডেন্ট আব্দুল হামিদ সাহেব(আমিনপুর কেএমসি সিনিয়র মাদ্রাসা), জার্জিস হোসেন, অমিত মন্ডল, শম্পা পাত্র,নুরুল আমিন,আব্দুল কাইয়ুম, মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ ,এটিএম অলিউল্লাহ সাহেব, জাকির হোসেন,মোহাম্মদ মিরাজ উদ্দিন, হাফিজুল, সাবিনা খাতুন, জুলফিকার আলী মিজানুর ইসলাম, শেখ রাজাউল ইসলাম, মোফাজ্জুল হক সাহেব, আব্দুর রশিদ সাহেব,কওসার আলি, প্রমুখ।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ