কলকাতা 

নরেন্দ্র মোদির গীতা পাঠের মোকাবিলায় মমতার চন্ডীপাঠ ? হিন্দু ধর্মের পবিত্র গ্রন্থ নিয়ে রাজনীতি !

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : কলকাতার গড়ের মাঠে ২৪শে ডিসেম্বর বসছে, গীতা পাঠের আসর উপস্থিত থাকবেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি অবশ্য এই গীতা পাঠের আসরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেউ আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে এই গীতা পাঠের আসর আসরের আয়োজক সংস্থা হল অখিল ভারতীয় সংস্কৃত পরিষদ। দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে সামনে রেখে গীতা পাঠের আসর যেমন বসতে চলেছে ২৪ শে ডিসেম্বর এর পরেই বসতে চলেছে চন্ডী পাঠের আসর। আর এর আয়োজক হল সনাতন ব্রাহ্মণ ট্রাস্ট।

দিন কয়েক আগে বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, “গীতাপাঠে অসুবিধা কী? আমি তো রোজ চণ্ডীপাঠ করি।” এর মধ্যেই এবার গীতাপাঠের পালটা চণ্ডীপাঠের আসর বসছে রাজ্যে। দিনক্ষণ ঠিক না হলেও এই ‘উৎসবে’ মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানানো হবে বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement

সূত্রের খবর, ডিসেম্বরেই কলকাতা বা পূর্ব মেদিনীপুরে বসতে পারে চণ্ডীপাঠের আসর। আয়োজক হতে পারে সনাতন ব্রাহ্মণ ট্রাস্ট। হাজির থাকতে পারেন ৫ হাজার ব্রাহ্মণ। ইতিমধ্য়ে বিষয়টি দুই মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ও অখিল গিরির মধ্যে আলোচনা হয়েছে বলেও সূত্রের খবর। উল্লেখ্যে গীতাপাঠের আসরের নেপথ্য রয়েছে বিজেপির প্রভাবিত অখিল হিন্দু পরিষদ। এই আসর থেকে ২৪-এর ভোটের আগে রাজ্যজুড়ে হিন্দুত্বের ধুঁয়ো তুলতে পারে গেরুয়া শিবির। এবার তারই পালটা এই চণ্ডীপাঠের আসর বসতে চলেছে বলে খবর। সেখানে কোনও বিজেপি নেতা বা মন্ত্রী আমন্ত্রিত থাকবেন কি না তা স্পষ্ট নয়।

জানা গিয়েছে, ২৪ ডিসেম্বর গীতা জয়ন্তী উপলক্ষে ব্রিগেডে তিন ঘণ্টার এই অনুষ্ঠানে গীতার প্রধান ৫টি অধ‌্যায় পাঠ করা হবে। অন্তত ১ লক্ষ সমবেত কণ্ঠে গীতাপাঠ হবে। ব্রিগেডে এই ধর্মীয় সমাবেশ গেরুয়া পন্থী সংগঠন অখিল ভারতীয় সনাতন সংস্কৃতি পরিষদ করলেও পিছনে পুরোপুরিভাবে রয়েছে বিজেপি ও সংঘ পরিবার। এদিকে, আয়োজক সংগঠনের দাবি, মোট ৩৬০০ হিন্দুত্ববাদী সংগঠন এই কর্মসূচিতে যোগ দেবে। ওইদিন ব্রিগেডে পুরীর শংকরাচার্য নিশ্চলানন্দ সরস্বতী ও দ্বারকার শংকরাচার্য সদানন্দ সরস্বতীর উপস্থিত থাকার কথা।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ