দেশ 

তেলেঙ্গানায় কংগ্রেসের নয়া মুখ্যমন্ত্রী অনুমুলা রেবন্ত রেড্ডি, শপথ ৭ ডিসেম্বর

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : তেলেঙ্গানায় কংগ্রেস নয়া মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বেছে নিল অনুমুলা রেবন্ত রেড্ডিই। আগামী পরশু সাত ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বারবেলায় মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন রেবন্ত রেড্ডি।

সোমবার কংগ্রেসের নব নির্বাচিত বিধায়করা হায়দরাবাদের গান্ধী ভবনে বৈঠকে বসেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন পড়শি রাজ্য কর্নাটকের উপমুখ্যমন্ত্রী ডিকে শিবকুমার (DK Shivakumar), প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি রেবন্ত রেড্ডি, কর্নাটকের মন্ত্রী কেজে জর্জ, কংগ্রেস নেত্রী দীপা দাসমুন্সি এবং এআইসিসির (AICC) পর্যবেক্ষকরা। ঘণ্টাখানেক নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেন কংগ্রেস বিধায়ক ও নেতৃবৃন্দ। কংগ্রেস সূত্রের দাবি, ওই বৈঠকেই সকলে রেবন্তের নামে সম্মত হন। বৈঠকের রিপোর্ট পাঠিয়ে দেওয়া হয় হাইকম্যান্ডের কাছে।

Advertisement

তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী পদ নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে মঙ্গলবার দিল্লিতে কংগ্রেসের শীর্ষনেতৃত্ব বৈঠকে বসে। সেই বৈঠকে রাহুল গান্ধী, মল্লিকার্জুন খাড়গেরা রাহুল গান্ধীর পছন্দ রেবন্ত রেড্ডির নামেই সিলমোহর দেন। বৈঠক শেষে রাহুল গান্ধী নিজেই বলে দেন, সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে গিয়েছে। রাহুলের স্পষ্ট ইঙ্গিত, রেবন্ত রেড্ডিই হচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। ৭ ডিসেম্বর হায়দরাবাদে শপথ নেবেন তিনি। সরকারিভাবে মঙ্গলবারই সিদ্ধান্ত ঘোষণা হবে।

যদিও রেবন্তের মুখ্যমন্ত্রী হওয়া আটকাতে মরিয়া হয়ে আসরে নেমেছিলেন কংগ্রেসের জনা চারেক প্রভাবশালী নেতা। উত্তম কুমার রেড্ডি, ভাট্টি বিক্রমার্ক, কোমাটিরেড্ডি ভেঙ্কট রেড্ডি, দামোদর রাজনরসিমারা দাবি করেছিলেন, রেবন্ত রেড্ডি (Revanth Reddy) নিজেকে তেলেঙ্গানার জনগণ এবং বিধায়কদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় হিসাবে তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন।

কংগ্রেসের কিছু নেতা অনুমুলা রেবন্ত রেড্ডির নামে আপত্তি জানিয়েছিলেন তাদের বক্তব্য ছিল ইনি কংগ্রেসের আসল লোক নন আগে আরএসএস করতেন। কিন্তু এইসব নেতাদের বক্তব্যকে আমল না দিয়ে অনুমুলা রেবন্ত রেড্ডিকেই মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বেছে নিল কংগ্রেস পরিষদীয় দল।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ