দেশ 

আগামীকাল চার রাজ্যের বিধানসভার ফল, রাহুল গান্ধী পাপ্পু, নাকি জননেতা প্রমাণ মিলবে বিধানসভার ফলে!

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সেখ ইবাদুল ইসলাম  : আগামীকাল রবিবার চার রাজ্য বিধানসভার ফলাফল ঘোষিত হবে। সকাল আটটা থেকে গণনা শুরু হবে ফল ঘোষণা শেষ পর্যন্ত তা চলবে। এই চার রাজ্যের নির্বাচনের ফলাফল দেশের রাজনীতিতে যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করবে তা নিয়ে কোন সন্দেহ নেই। রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, ছত্রিশগড় এবং তেলেঙ্গানা।

বর্তমানে রাজস্থান এবং ছত্রিশগড়ে বিরোধীদল কংগ্রেস ক্ষমতায় আছে । মনে করা হচ্ছে যে ছত্রিশগড়ে ফের কংগ্রেস দল ক্ষমতায় আসবে। অন্যদিকে রাজস্থানে সমানে সমানে টক্কর হবে বলে এক্সিট পোল বলছে। যদিও বেশ কয়েকটি এক্সিট পোল আভাস দিয়েছে পরম্পরা ভেঙে এবার রাজস্থানের সরকার গঠন করতে চলেছে কংগ্রেস ।

Advertisement

কারন রাজস্থানের সাধারণ ভোটাররা প্রতি ৫ বছর অন্তর সরকারের পরিবর্তন করে থাকে। এবার নাকি তা করবে না এমন একটা আভাস পাওয়া যাচ্ছে। যদি এরকম হয় রাজস্থানে ফের কংগ্রেস ক্ষমতায় আসে তাহলে আগামী লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি দলকে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হবে এবং কংগ্রেস দল উজ্জীবিত হবে। অন্যদিকে মধ্যপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে ২০১৮ সালে ক্ষমতায় এসেছিল কংগ্রেস কিন্তু বিধায়ক ভাঙ্গিয়ে পরবর্তীতে কমলনাথ সরকারের অবসান ঘটিয়ে ক্ষমতায় এসেছিল বিজেপি শিবরাজ সিং চৌহানের নেতৃত্বে। আর এখানে জনমত সমীক্ষা থেকে শুরু করে এক্সিট পোল সবাই বলছে লড়াই হবে সমানে সমানে। এগিয়ে রয়েছে কংগ্রেস। তবে শেষ পর্যন্ত বিজেপির পক্ষে শিকে ছিঁড়তে পারে।

তেলেঙ্গানা রাজ্য গঠিত হওয়ার পর থেকে সেখানে ক্ষমতায় আছে বিআরএস। এবার সমস্ত এক্সিট পোল বলছে এবং জনমত সমীক্ষা বলছে তেলেঙ্গানায় এবারে ক্ষমতায় আসছে কংগ্রেস। সবমিলিয়ে চার রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফলে যদি কংগ্রেস দল তিনটি রাজ্যে ক্ষমতায় পায় তাহলে এটাই স্পষ্ট হয়ে যাবে আগামী লোকসভা নির্বাচন বিজেপির কাছে চ্যালেঞ্জ হতে চলেছে। কারণ রাজস্থান মধ্যপ্রদেশ ছত্তিশগড় তেলেঙ্গানা এই কটি রাজ্যের মধ্যে বেশ কয়েকটি লোকসভা আসন আছে যারা আগামী দিনের বিজেপিকে চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলতে পারে।

আর কংগ্রেস দল এই চারটি রাজ্যের মধ্যে দুটি থেকে তিনটি রাজ্যে যদি ক্ষমতায় আসতে পারে তাহলে এটাই স্পষ্ট হয়ে যাবে রাহুল গান্ধীর নেতৃত্ব জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্যতা পাচ্ছে। রাহুলের নেতৃত্বে ভারত জোড়া যাত্রার যে সাফল্য সেই সাফল্যে ভর করে আগামী দিনে মোদিকে যে বড় চ্যালেঞ্জ দিতে পারবে সে ব্যাপারে কোন সন্দেহ থাকার কথা নয়। এক কথায় বলা যেতে পারে রাহুল গান্ধীকে এতদিন যারা পাপ্পু বলে আসছিল তাদের কাছে এটাই স্পষ্ট হয়েছে রাহুল এখন জননেতার আসনে। স্বাধীন ভারতের তিনিই প্রথম জাতীয় নেতা যিনি সমগ্র দেশ জুড়ে ভারত ও জোড়া যাত্রার মত একটি যাত্রা করেছিলেন যেখানে তিনি স্লোগান দিয়েছিলেন বিদ্বেষ ছোড়ো ভারতজড়ো। বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল যদি কংগ্রেসের অনুকূলে যায়, তাহলে এটাই স্পষ্ট হয়ে যাবে যে কংগ্রেস আবার জাগছে। আর কংগ্রেস জাগরিত হলে এ দেশে হিন্দু মুসলমানের মধ্যে যে বিভেদ সেই বিভেদ টা অনেকটাই কমে যাবে বলে রাজনৈতিক মহল মনে করছে।

 

 

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ