দেশ 

সরকারি স্কুলের প্রিন্সিপালের বিরুদ্ধে ১৪২ জন ছাত্রীর যৌন হেনস্তার অভিযোগ! বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : শিক্ষকরা সমাজের মেরুদন্ড তারা জাতির ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্মদাতা। কিন্তু এই শিক্ষকের হাতেই যদি নির্যাতনের শিকার হন পড়ুয়ারা তাহলে শিক্ষা ব্যবস্থা কোন পথে যাবে? শুধু নির্যাতন নয় যৌন হেনস্তার শিকার হচ্ছে আজকের দিনের ছাত্রীরা! শিক্ষক তো দুর অস্ত খোদ প্রিন্সিপালের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ এনেছে ১৪২ জন ছাত্রী।

ঘটনাটি ঘটেছে বিজেপি শাসিত হরিয়ানায়। প্রথমে ৬০ জন ছাত্রী একসঙ্গে প্রিন্সিপালের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিল আর সেই অভিযোগ শেষ পর্যন্ত ১৪২ জন ছাত্রীর করল। প্রিন্সিপাল কোন বেসরকারি স্কুলের শিক্ষক সরকারি স্কুলের প্রিন্সিপাল।

Advertisement

সরকার পরিচালিত স্কুলের প্রিন্সিপালের হাতেই যদি ছাত্রীদের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হয় তাহলে সমাজ কোন পথে যাবে?

‘সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্ট কমিটি’র তদন্তে জানা গিয়েছে, বছর ৫৫-র ওই প্রিন্সিপালের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন যাবৎ অভিযোগ জমা পড়ছিল। শেষ পর্যন্ত হরিয়ানার মহিলা কমিশনের তৎপরতায় ব্যবস্থা নেওয়া হয় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে। গত ১৪ সেপ্টেম্বর ১৪২ ছাত্রীকে যৌন হেনস্তার অভিযোগে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন হরিয়ানার মহিলা কমিশনের প্রধান রেনু ভাটিয়া। যদিও মাস দেড়েক বাদে ৩০ অক্টোবর প্রিন্সিপালকে বরখাস্ত করে শিক্ষ দফতর। অন্যদিকে গত ৬ নভেম্বর গ্রেফতার করা হয় তাঁকে।

জানা গিয়েছে, হরিয়ানার জিন্দ জেলায় রয়েছে স্কুলটি। আপাতত স্কুল ও অভিযুক্ত প্রিন্সিপালের নাম-ঠিকানা প্রকাশ্যে আনা হয়নি। এদিকে গোটা ঘটনায় বেজায় অস্বস্তিতে রাজ্য প্রশাসন। দোষী সাব্যস্ত হলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে, প্রতিশ্রুতি দিয়েছে সরকার।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ