প্রচ্ছদ 

যুদ্ধ বন্দী কোন ইসরাইল সেনাকে এখনই মুক্তি দেওয়া হবে না জানালো হামাস

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : কাতার এবং মিশরের হস্তক্ষেপে ইসরাইল এবং হামাসের মধ্যে বন্দী মুক্তি বিনিময় চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার পর চারদিনের জন্য যুদ্ধ বিরতির কথা ঘোষণা করেছে দুই পক্ষই। এক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকরা বলছেন কার্যত ফিলিস্তিনি সশস্ত্র সংগঠন হামাসের কাছে আত্মসমর্পণ করল ইসরাইলরা।

৫০ জন বন্দী মুক্তির বিনিময়ে দেড়শ জন ফিলিস্তিনি বন্দিকে ছেড়ে দেওয়ার কথা ওই চুক্তিতে বলা হয়েছে এর ফলে কার্যত ইসরাইল হামাসের কাছে হেরে গেল বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ হামাস প্রথম থেকেই দাবি করে আসছিল তারা ইসরাইলি বন্দীদের তখনই ছাড়বে যখন ফিলিস্তিনি বন্দিদের ছাড়া হবে।

Advertisement

হামাসের এই দাবির কাছে কার্যত নতি স্বীকার করতে হলো ইসরাইলকে ৫০ জনের বিনিময়ে দেড়শ জন ফিলিস্তিনি কে ছাড়তে হচ্ছে। অন্যদিকে গতকাল বুধবার ইসরাইলের ওয়ার ক্যাবিনেট এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত ঘোষণার সময় জানিয়েছিল তারা মূলত হামাসকে শেষ করার জন্য একটি সাময়িক বিরতি নেওয়ার জন্যই এই ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইসরাইলের মূল নিশানা হচ্ছে যেনতেনো প্রকারণে হামাসকে শেষ করা।

এই বিবৃতি প্রকাশের কয়েক ঘণ্টা পর হামাসের পক্ষ থেকে বিবৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, ৫০ জন বন্দীর বিনিময়ে দেড়শ জনকে পাচ্ছি অন্যদিকে যুদ্ধবন্দী কোন ইসরাইলি সেনাকে ছাড়া হবে না ইসরাইলি সেনাদের তখনই ছাড়া হবে যখন ইসরাইলের জেল থেকে সমস্ত ফিলিস্তিনিকে মুক্ত করা হবে।

আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ মহল মনে করছে হামাসের এই হুঁশিয়ারির পর ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রীর হুংকার কার্যত জলে ভেসে যাবে।

 

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ